নবীগঞ্জে মানবতাবিরোধী মামলায় দুই ভাই গ্রেপ্তার

25

Saudi Arabia - dailysylhetহবিগঞ্জ, ১০ ফেব্রুয়ারি: হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ থেকে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন- হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার খাগাউড়া ইউনিয়নের কুমুরশামা গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান বড় মিয়া (৭০) ও তার ছোট ভাই বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়া (৬৫)।
মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় নবীগঞ্জের ইমামবাড়ি বাজার এলাকা থেকে গোয়েন্দা পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। এর আগে সকালেই এ দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল-২।
প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সীমন, তুরিন আফরোজ, তাপস কান্তি বল ও রেজিয়া সুলতানা চমন সোমবার রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে মহিবুর রহমান বড় মিয়া ও মজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন জানান।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বড় মিয়া ও আঙ্গুর মিয়া নবীগঞ্জ থানায় রাজাকার বাহিনী গড়ে তোলেন। তারা এলাকার মুক্তিযোদ্ধাদের পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে ধরিয়ে দেন। তাদের বিরুদ্ধে এলাকার আকল মিয়া ও রজব আলী নামে দুই মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যার অভিযোগও রয়েছে।
এ ছাড়া তারা মুক্তিযুদ্ধের উপ-প্রধান সেনাপতি মরহুম মেজর জেনারেল এম এ রবের বাড়িতে পাকিস্তানি বাহিনীর সহযোগিতায় অগ্নিসংযোগ ও লুটতরাজ করেন বলে অভিযোগ আছে।
এসব অভিযোগ এনে ২০০৯ সালে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আকল মিয়ার স্ত্রী ভিংরাজ বিবি হবিগঞ্জের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কগনিজেন্স-৪ এর বিচারক রাজীব কুমার বিশ্বাসের আদালতে মহিবুর রহমান বড় মিয়া ও মজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়ার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ এনে মামলা (নং- ২৭০/০৯) দায়ের করেন।
বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে ২৫ কার্যদিবসের মধ্যে বানিয়াচং থানা পুলিশকে এ বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। পরে মামলাটি আদালত থেকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হয়।
গত বছরের ২৬ নভেম্বর ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়কারী সানাউল হকের নেতৃত্বে গঠিত তদন্ত দল হবিগঞ্জে আসেন।
পরে তারা এ বিষয়ে তদন্ত করে বড় মিয়া ও আঙ্গুর মিয়ার বিরুদ্ধে আনা মানবতাবিরোধী অপরাধের সত্যতা পান।
এরই পরিপ্রেক্ষিতে ট্রাইব্যুনালের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর পরই মঙ্গলবার দুপুরে হবিগঞ্জ পুলিশের গোয়েন্দা শাখার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুদীপ রায়ের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল নবীগঞ্জের ইমামবাড়ি এলাকা থেকে দুই ভাইকে গ্রেপ্তার করে।
হবিগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) মাসুদুর রহমান মনির গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।