চিরকালীন অবসরে টেন্ডুলকারের ১০ নম্বর জার্সি

30

স্পোর্টস ডেস্ক :

শচীনের এ জার্সি তুলে রাখবে বিসিসিআই। ছবি: এএফপিপেলে অবসর নেওয়ার পর তাঁর ১০ নম্বর জার্সি তুলে রেখেছিল নিউইয়র্ক কসমস। নাপোলির হয়ে একই সম্মান পেয়েছিলেন ডিয়েগো ম্যারাডোনা, যেমনটা রবার্তো ব্যাজ্জোর প্রতি দেখিয়েছে ব্রেশিয়া। এমনকি বাংলাদেশের ফুটবলেও ১৯৮৪ সালের পর কাজী সালাউদ্দিনের ‘১০ নম্বর’ জার্সি দীর্ঘদিন তুলে রেখেছিল আবাহনী। অবসর নেওয়া ডাকসাইটে খেলোয়াড়দের প্রতি সম্মান জানিয়ে তাঁদের জার্সি তুলে রাখার প্রথাটা ফুটবলেই বেশি চোখে পড়ে। তবে ক্রিকেটেও এমন নজির আছে।

ফিল হিউজের মৃত্যুর পর তাঁর ৬৪ নম্বর জার্সিটা আর কেউ পরতে চায়নি। খেলোয়াড়দের অনুরোধে সেই ৬৪ নম্বর জার্সি চিরতরে তুলে রেখেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এ ওপেনারের জার্সি তুলে রাখার পেছনে রয়েছে তাঁর অকালে চলে যাওয়ার বেদনা। কিন্তু জীবদ্দশাতেই পেলে-ম্যারাডোনার মতো এ সম্মান পাচ্ছেন; তিনি শচীন টেন্ডুলকার!

খেলোয়াড়ি জীবনে ৩৩ ও ৯৯ নম্বরের জার্সিও পরেছেন টেন্ডুলকার। কিন্তু পরে পরা শুরু করেন ১০ নম্বর জার্সি। ম্যারাডোনার যেমন ফুটবলে, ঠিক তেমনি ক্রিকেটে সবচেয়ে ‘আইকনিক’ ১০ নম্বর জার্সিটা তাঁর। এই ১০ নম্বর জার্সি পরে শততম সেঞ্চুরি আর ওয়ানডেতে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন শচীন। ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে তাই এই ১০ নম্বর জার্সির মাহাত্ম্য অন্য রকম। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সিদ্ধান্ত নিয়েছে টেন্ডুলকারের এই ১০ নম্বর জার্সি চিরতরে তুলে রাখা হবে। আর কোনো দিন কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচে ভারতীয় দলের কোনো ক্রিকেটারকে দেখা যাবে না এ জার্সিতে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এমন সিদ্ধান্ত বিসিসিআই নাকি এরই মধ্যে ঘরোয়াভাবে নিয়ে নিয়েছে।

২০১৩ সালে ২৪ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ করেন টেন্ডুলকার। একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ছাড়াও ২০১২ সালের মার্চে ঢাকায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডেতে ১০ নম্বর জার্সি পরেছিলেন তিনি। এরপর প্রায় পাঁচ বছর ধরে টেন্ডুলকারের ১০ নম্বর জার্সি আর কেউ গায়ে তোলেনি। কিন্তু গত আগস্টে কলম্বোয় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক ম্যাচে ১০ নম্বর জার্সি পরায় ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের রোষানলে পড়েন শার্দুল ঠাকুর। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উঠেছিল সমালোচনার ঝড়। অনেকেই বলেছিলেন, শার্দুল ‘শচীন হওয়ার চেষ্টা করছেন’। এ নিয়ে কম ঠাট্টা-রসিকতা হয়নি, এমনকি রোহিত শর্মা পর্যন্ত শার্দুলের ১০ নম্বর জার্সি পরা নিয়ে মজা করেছেন!

বিসিসিআই তাই চায় না ১০ নম্বর জার্সি নিয়ে আর কোনো বিতর্ক মাথাচাড়া দিয়ে উঠুক। বোর্ডের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘এভাবে বিতর্ক তৈরি করাটা অপ্রয়োজনীয় এবং খেলোয়াড়েরা সমালোচনার শিকার হচ্ছে। তাই এই জার্সিটা অনানুষ্ঠানিকভাবে চিরতরে তুলে রাখাই ভালো। ভারতীয় “এ” দল কিংবা লিস্ট-এ ম্যাচে খেলোয়াড়েরা এ জার্সি পরতে পারবে, তবে আন্তর্জাতিক ম্যাচে নয়।’

ভারতীয় দলের তারকা খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরামর্শ করেই বিসিসিআই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর আগে শচীন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়ার পর তাঁর সম্মানে ১০ নম্বর জার্সিটি চিরতরে তুলে রাখে আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে।