উদ্বোধন হলো দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র

42

নিউজ ডেস্ক:: দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে আলোর মুখ দেখতে পেল বহুল প্রত্যাশিত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মাধ্যমে দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণে বাংলাদেশ এগিয়ে গেল আরও এক ধাপ।
সকালে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে করে ঈশ্বরদী উপজেলায় পদ্মাতীরের রূপপুরে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। প্রকল্প এলাকায় যে জায়গায় নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর তৈরি হবে, সেখানে অস্থায়ী মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি কর্ণিক দিয়ে নিজে হাতে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ‘প্রথম কংক্রিট ঢালাইয়ের’ উদ্বোধন করেন। আর এতে পারমাণবিক বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী ৩২তম দেশ হিসেবে তালিকাভুক্ত হলো বাংলাদেশ।
ঈশ্বরদী বিমানবন্দর থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার সড়ক সাজানো হয়েছে মনোরম সাজে। প্রকল্প এলাকায় নেয়া হয়েছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এ প্রকল্পের প্রধান প্রকৌশলী ইউরিক মিখাইল খোসলেভ বলেন, বৃহস্পতিবার পারমাণবিক চুল্লির জন্য ভিত্তি তৈরির কংক্রিট ঢালাই শুরু হচ্ছে। এ কাজের প্রস্তুতির জন্য যন্ত্রের সাহায্যে মাটির অনেক গভীর পর্যন্ত সিমেন্ট মিশিয়ে দেয়া হচ্ছে, যাতে চুল্লির নিচে মাটির কাঠামোতে কোনো সমস্যা না হয়।
পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের মূল স্থাপনা নির্মাণ কাজ শেষ করতে আজ থেকে ৬৮ মাস সময় পাবে রাশিয়ার কোম্পানি অ্যাটমস্ট্রয় এক্সপোর্ট। সে অনুযায়ী ২০২৩ সালের মে-জুনে কেন্দ্রটির ১ হাজার ২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার প্রথম ইউনিট এবং এর পরের বছর একই ক্ষমতার দ্বিতীয় ইউনিট চালু হওয়ার কথা।