‘টার্ন’ নিয়ে স্বপ্নে বিভোর পপি

49

বিনোদন ডেস্ক ::

ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা সাদিকা পারভিন পপি। বর্তমানে চলচ্চিত্রে অনেকটা অনিয়মিত। ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে শাকিল খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে বেশ কয়েকটি সাড়া জাগানো ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছিলেন পপি। একপর্যায়ে শাকিল খান অভিনয়ে অনিয়মিত হয়ে পড়লে পপিও অনেকটা পিছিয়ে যেতে থাকেন। পরে শাকিব খান, রিয়াজ ও ফেরদৌসের সঙ্গে জুটি বেঁধে আবার ছবিতে কামব্যাক করেন পপি।

পপি অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত শেষ ছবি ‘সোনাবন্ধু’। এ ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন ছোটপর্দার অভিনেতা ডি এ তায়েবের বিপরীতে। আরো ছিলেন নায়িকা পরীমনি। গত কোরবানির ঈদে মুক্তি পায় ছবিটি। কিন্তু ছবিটি তেমন সাড়া জাগাতে পারেনি। তবে এবার তিনি পর্দায় হাজির হচ্ছেন ভিন্ন রকম এক চরিত্রে। প্রথমবারের মতো কোনো ছবিতে দ্বৈত ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। ছবির নাম ‘টার্ন’। যে ছবিতে একই সঙ্গে প্রতিবন্ধী ও বুদ্ধিমতী তরুণীর চরিত্রে পর্দায় হাজির হবেন পপি। ছবিটিতে অভিনয়ের জন্য ইতোমধ্যে চুক্তিবদ্ধও হয়েছেন তিনি। ছবিটি পরিচালনা করবেন শহীদুল ইসলাম খান। ছবির কাহিনি ও চিত্রনাট্যও তিনি লিখেছেন। ভিন্ন ধরনের গল্পের এ ছবিটির নির্মাণ প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে।

‘টার্ন’ তার স্বপ্নের ছবি উল্লেখ করে নায়িকা পপি বলেন, ‘জীবনে প্রথম কোনো ছবিতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করছি। যেখানে একই সঙ্গে প্রতিবন্ধী ও বুদ্ধিমতী তরুণীর চরিত্রে দেখা যাবে আমাকে। এর আগে এমন কোনো গল্পে অভিনয় করিনি। ‘টার্ন’ হবে আমার অভিনয় ক্যারিয়ারের অন্যতম একটি ছবি। নিজেকে ভাঙার জন্য নানা ধরনের ছবিতে কাজ করেছি, কিন্তু সেসব থেকে ‘টার্ন’ অনেকটা ব্যতিক্রম হবে বলেই মনে করি।’

১৯৯৭ সালে মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘কুলি’ ছবির মাধ্যমে রুপালি পর্দায় অভিষেক হয়েছিল পপির। সে ছবিতে তার নায়ক ছিলেন ওমর সানী। ২০ বছরের ক্যারিয়ারে তিনি উপহার দিয়েছেন বেশ কিছু হিট ও ব্যবসাসফল ছবি। অভিনয় দক্ষতা দেখিয়ে তিনবার ঘরে তুলেছেন ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’। দুবার জিতেছেন বাচসাস পুরস্কারও।