কালাগুল তাওয়াক্কুলিয়া মাদ্রাসার সুন্নী মহাসম্মেলন

43

সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের কালাগুল তাওয়াক্কুলিয়া হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার বার্ষিক ইসলামী সুন্নী মহা সম্মেলন গত মঙ্গলবার মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল সকাল ১১টায় শুরু হয়ে পরদিন ফজর পর্যন্ত চলে।
মাদ্রাসার সভাপতি মো. এখলাছুর রহমানের সভাপতিত্বে ও মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আজির উদ্দিন ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় সুন্নী মহা-সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জালালপুর জা. সিনিয়র মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ প্রিন্সিপাল আল্লামা শুয়াইবুর রহমান বালাউটি। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আল্লামা মুফতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী।
বক্তব্য রাখেন আমন্ত্রিত মেহমান সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, খাদিমনগর ইউপি চেয়ারম্যান মো. দিলোয়ার হোসেন।
এছাড়াও সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ইকড়ছই আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ছমির উদ্দিন, কামালবাজার ফাজিল মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুস সালাম ছালেহী, মাওলানা আব্দুর রহিম কামালী, মাওলানা নিজাম উদ্দিন, মাওলানা মর্তুজ আলী, সাহেবের বাজার মাদ্রাসার সুপার মাওলানা কবি জহির মুহাম্মদ, চারিকাটির চক সুন্নী মাদ্রাসার সহ সুপার মাওলানা জামিল আহমদ জামালী, সাহেবের বাজার মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা হাফিজ আব্দুর রব প্রমুখ। এছাড়াও দেশ বরেণ্য উলামায়ে কেরামগণ উপস্থিত ছিলেন।
সম্মেলনে বক্তারা বলেন, ইসলামে ঐক্যের গুরুত্ব অপরিসীম। ইসলামের মৌলিক আহ্বান হচ্ছে আল্লাহ ছাড়া কোন উপাস্য নেই এবং মুহাম্মাদ (সা.) আল্লাহর রাসূল। এই তাওহিদী আহ্বানের মধ্যেই ঐক্যের বীজ নিহিত।
বক্তারা আরো বলেন, ইসলামের আগমনের পূর্বে আরববাসীদের মধ্যে কোন ঐক্য ছিলনা। তাই গোত্রে গোত্রে মারামারি, হানাহানি লেগেই থাকতো। ইসলাম আবির্ভাবের পরে ঐক্য সৃষ্টি হয়। দূর হয় আইয়্যামে জাহেলিয়াতের যুগ। আল্লাহ তাআলা পবিত্র কালামে উল্লেখ করেছেন, ‘এবং তোমরা সকলে আল্লাহর রজ্জু দৃঢ়ভাবে ধর এবং পরস্পর বিচ্ছিন্ন হয়ো না। তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহকে স্মরণ কর। তোমরা ছিলে পরস্পর শত্রু এবং তিনি তোমাদের হৃদয়ে প্রীতির সঞ্চার করেন। ফলে তাঁর অনুগ্রহে তোমরা পরস্পর ভাই হয়ে গেলে। তোমরা অগিকুন্ডের প্রান্তে ছিলে, আল্লাহ তা হতে তোমাদেরকে রক্ষা করেছেন। এইরূপে আল্লাহ তোমাদের জন্য তাঁর নিদর্শন স্পষ্টভাবে বিবৃত করেন যাতে তোমরা সৎপথ পেতে পার।- সূরা আলে ইমরান : ১০৩।
ইসলামে ঐক্য সপ্তাহ উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, বিশ্বের সকল মুসলমান মহানবী (সা.)-এর জন্মবার্ষিকী পালন করে থাকেন। সুন্নি মতাদর্শে বিশ্বাসীরা ১২ রবিউল আউয়াল দিবসটি উদযাপন করে থাকেন।
মহাসম্মেলনে সামাজিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাজী আব্দুল কাদির শারন, এইচএমএ মালিক ইমন, মো. ইকলাল আহমদ, ইউপি সদস্য মো. আনছার আলী ও মো. বশির আহমদ, মাহবুবুর রহমান, মুক্তার হোসেন, কামাল আহমদ, মইনুদ্দিন, কছির আহমদ প্রমুখ।-বিজ্ঞপ্তি