গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে কনস্টেবল কারাগারে

205

সবুজ সিলেট ডেস্ক
খুলনা নগরীর মুজগুন্নী পার্কে ঘুরতে আসা এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে খালিশপুর থানার পুলিশ কনস্টেবল মিরাজ উদ্দিনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
বুধবার তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হলে মহানগর হাকিম মো. আমিরুল ইসলাম কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
মিরাজ সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের আবদুল জলিলের ছেলে। মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা যায়, ২০ ডিসেম্বর ৫ বছরের শিশুকন্যাকে নিয়ে সাতক্ষীরা থেকে খুলনায় মামার বাড়িতে বেড়াতে আসেন ওই গৃহবধূ (২১)।
২৬ ডিসেম্বর বিকেলে তার স্বামীর বন্ধুর সঙ্গে মুজগুন্নী পার্কে বেড়াতে যান। সন্ধ্যায় পার্ক থেকে বের হয়ে ইজিবাইকে ওঠার সময় পুলিশ কনস্টেবল মিরাজ উদ্দিন তাদের পথরোধ করেন। এরপর মোবাইল ফোনে ওই গৃহবধূ ও স্বামীর বন্ধুর ছবি ধারণ করে তার স্বামীর কাছে পাঠানোর ভয় দেখান। এ সময় স্বামীর বন্ধুর কাছে থাকা ২ হাজার ২০০ টাকা মিরাজকে দেওয়া হয়। এরপর ওই কনস্টেবল গৃহবধূকে তার মোটরসাইকেলে তুলে গল্লামারী এলাকার চৌধুরী আবাসিক হোটেলে নিয়ে যান। সেখানে নিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে নগরীর খালিশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম খান জানান, মিরাজ উদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মামলার তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে।