নির্বাচনে বিএনপির মতো একটি প্রতিদ্বন্দ্বী দল চাই: কাদের

185

নিউজ ডেস্ক::সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা বিএনপির মতো একটি প্রতিদ্বন্দ্বী দল চাই। নির্বাচনতো অনেকই করবে। বিএনপি একটি বড় দল। আমরা চাই তারা নির্বাচনে আসুক এবং নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হোক।

মঙ্গলবার রাজধানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআরটিসির অভিযানে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়া বা না দেয়া সম্পূর্ণ আদালতের বিষয়, এখানে আওয়ামী লীগের কোনো সমস্যা নেই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ চায় বিএনপি নির্বাচনে আসুক। তবে খালেদা জিয়ার কারাবাস কতদিনের হবে, তা নির্ভর করবে আদালতের ওপর। এ ব্যাপারে সরকার কোন ধরনের হস্তক্ষেপ করবে না।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি ভেঙ্গে যাক, আওয়ামী লীগ তা চায় না। বিএনপি ভাঙার জন্য তারেক রহমানই যথেষ্ট।যারা আন্দোলনের ডাক দিয়ে ঘরে বসে থাকে, জনগণ তাদের আন্দোলনে কখনই সমর্থন দেবে না বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

সরকারের কারণে রায়ের কপি পেতে বিলম্ব হওয়ায় আপিলেও দেরি হচ্ছে-বিএনপি নেতা মওদুদ আহমেদের এমন অভিযোগের বিষয়েও কথা বলেন কাদের।

তিনি বলেন, মওদুদ আহমেদের মন্তব্য নিয়ে দেশের মানুষের সবসময়ই সংশয় থাকে। কারণ তিনি নিজেই ভুয়া কাগজ দিয়ে অবৈধভাবে বাড়ি দখল করতে চেয়েছিলেন।

খালেদা জিয়ার রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপি দুর্বার আন্দোলনের হুমকি দিলেও ওবায়দুল কাদের মনে করেন, বিএনপি সেটা পারবে না।

তিনি বলেন, মানুষ এখন নির্বাচনের মুডে চলে গেছেন। এখন আর আন্দোলনের মুডে জনগণ নেই।

কাদের বলেন, বিএনপি আন্দোলনের হাঁকডাক যেভাবে দেয়, সেখানে জনগণ সাড়া না দিলেতো কোন আন্দোলন হবে না। তাদের নেতারাই তো মাঠে আসে না। বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে তাদের কয়জন নেতা মিছিল মিটিং এ অংশ নিয়েছে, তা খবর নিয়ে দেখুন। নেতারা আন্দোলন ডেকে এয়ারকন্ডিশন্ড রুমে বসে থাকেন, আরাম আয়েশে দিন কাটান, মাঝে মধ্যে পুলিশের গতিবিধির খবর নেন। তাহলে আন্দোলন কীভাবে সম্ভব?।

তিনি বলেন, আমরা আন্দোলন করেছি বিএনপির সময়ে, আমাদের নেতারা রাজপথে ছিল। এখন সম্পূর্ণ ভিন্ন চিত্র, হাতে গোনা কয়েকজন ছাড়া কেউ নেই।

খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার বিষয়ে বিএনপি নেতাদের অবস্থানের বিষয়ে জানতে চাইলে কাদের বলেন, বিএনপি একবার বলছে যে কোনো পরিস্থিতিতে নির্বাচনে যাবে। আবার বলছে বেগম জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে যাবে না। এখন তারাই বলতে পারে কোনটা সঠিক।