শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ বা ইন্টারনেট বন্ধ রাখা কোনোটাই সঠিক সমাধান নয় —প্রশ্নপত্র ফাঁস প্রসঙ্গে ড. জাফর ইকবাল

52

স্টাফ রিপোর্টার ::
চলতি এসএসসি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা নিয়ে সারাদেশে তোলপাড় চলছে। প্রতিটি পরীক্ষার আগেই ফাঁস হচ্ছে। এ নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি খোদ সংসদেও তুলেছেন বিরোধীদল জাতীয় পার্টির এক এমপি। এছাড়া প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে পরীক্ষা চলাকালে ইন্টারনেট সাময়িক বন্ধেরও কথা তুলেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এবছর প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ ও ইন্টারনেট বন্ধের সিদ্ধান্তের ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়। এ সকল বিষয় উড়িয়ে দিয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ও বিশিষ্ট লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ বা পরীক্ষার আগে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা কোনোটাই সঠিক সমাধান নয়। প্রশ্ন ফাঁসের মূল কারণ উদঘাটন করে এর সমাধান করাটাই সব চেয়ে বেশি প্রয়োজন।
গতকাল বুধবার সকালে সিলেট নগরীর মিরের ময়দায়ে বিশ্ব বেতার দিবসের অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন তিনি।
জাফর ইকবাল আরো বলেন, ইন্টারনেট বন্ধের কথা না ভেবে প্রয়োজনে বিজি প্রেসে প্রশ্ন না ছাপিয়ে বিকল্প উপায়ে প্রশ্ন ছাপানোর ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। কিভাবে প্রশ্ন ফাঁস রোধ করা যায়, সে বিষয়ে ভাবতে হবে-দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। যারা প্রশ্ন ফাঁসের সাথে জড়িত তাদের শাস্তি দিতে হবে।
ড. জাফর ইকবাল বলেন, এভাবে প্রশ্ন ফাঁস চলতে থাকলে এদেশে শিক্ষার কোনো গুরুত্ব থাকবে না। প্রশ্ন ফাঁসের প্রতিবাদে আমি নিজে শহীদ মিনারে বৃষ্টিতে ভিজে আন্দোলন করেছি। তখন কিন্তু প্রশ্ন ফাঁসের কথা কেউ স্বীকার করেনি। এখন বিষয়টা স্বীকার করা হলেও কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।
এর আগে সকালে বিশ^ বেতার দিবস ২০১৮ উপলক্ষে ‘ক্রীড়াঙ্গণে বেতার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্র আয়োজিত র‌্যালী পূর্ব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বেতারকে বাঁচিয়ে রাখতে নতুন নতুন টেকনোলজি তৈরি করতে হবে। কিভাবে নতুন টেকনোলজির মাধ্যমে বেতারকে আরো যুগোপযোগী করা যায় সে বিষয়ে আরো গুরুত্বসহকারে কাজ করতে হবে।
সিলেট কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালক মো. ফখরুল আলমের সভাপতিত্বে ও সহকারী পরিচালক পবিত্র কুমার দাশের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির ছিলেন মদন মোহন কলেজের অধ্যক্ষ ড. আবুল ফতেহ ফাত্তাহ, আঞ্চলিক প্রকৌশলী মানোয়ার হোসেন খান, উপ-আঞ্চলিক পরিচালক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তারিক, মোহাম্মদ আব্দুল হক, মো. হাবিবুর রহমান, উপ-বার্তা নিয়ন্ত্রক সঞ্জয় সরকার, উপ-আঞ্চলিক প্রকৌশলী আবুল হাছান মো. ফয়সল, সহকারী পরিচালক মো. জাকিরুল ইসলাম, প্রদীপ কুমার দাস, মো. জোনায়েদ হোসেন, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আজিজ আহমদ সেলিম, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির প্রমুখ।