আজ রাতের উত্তাপ বাড়াবে নেইমার-রোনালদো

16

নিউজ ডেস্ক:: চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলর ম্যাচ যেন ফাইনালের চেয়ে কোনও অংশে কম নয়। জোরদার লড়াই আর ধামাকা রাতের আগে তৈরি রিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজি।

লা ব্লাঙ্কোস গ্রুপ এইচে দ্বিতীয় স্থানে শেষ করেছিল গ্রুপ শীর্ষে ছিল টটেনহ্যাম হটস্পার। অন্যদিকে গ্রুপ বি-তে শীর্ষে থেকে প্রাথমিক রাউন্ড শেষ করেছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেইন। বায়ার্ন মিউনিখকে টপকে গিয়েছিল তারা।

এই মুহূর্তে উনাই এমেরি-র পিএসজি ফরাসি লিগ টেবিলের এক নম্বর স্থানে রয়েছে। ২ নম্বরে থাকা মোনাকোর সঙ্গে তাদের পয়েন্টের ব্যবধান ১২। সপ্তাহান্তের ম্যাচেও জিতেছে নেইমার ব্রিগেড। তুলুসে-র বিরুদ্ধে ১-০ গোলে জেতে তারা। যদিও গোলটি আত্মঘাতী ছিল। তাও জয়ের বিষয়টাই আলাদা। এদিনের জয়ের ফলে তারা সবরকম প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ছটি ম্যাচ জিতে রয়েছে তারা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে প্রতিটা ম্যাচেই ৪টি করে গোল করেছে পিএসজি। ৬টি ম্যাচে তাদের গোল সংখ্যা ২৫। আর গোল খেয়েছে ৪টি।

এদিকে এবার লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের সবচেয়ে খারাপ মৌসুম গিয়েছে। পরপর দুবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী রিয়াল মাদ্রিদ সাম্প্রতিক অতীতের সবচেয়ে খারাপ সময় কাটিয়েছে এবারের ঘরোয়া লিগে। এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতলে টানা তিন বার জয়ের বিরল নজির গড়বে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এন্ড কোং।

ঘরোয়া লিগে এবার সিআর সেভেন বেরঙ লাগলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রাথমিক পর্বের প্রতিটা খেলাতেই গোল করেছেন পর্তুগিজ তারকা। তারপরও সপ্তাহান্তের লা লিগার খেলায় ৫-২ গোলে জিতেছে রিয়াল। তাতে আবার রোনালদো হ্যাটট্রিক করেছেন। তবে শেষ নয়টি ম্যাচের মাত্র ৪টি তে জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

ঘরের মাঠে ২০১৪ সালের এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদ ১৮টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ খেলেছে। তার মধ্যে ১৫টি জিতেছে ও ৩টি ড্র করেছে। একটি ম্যাচেও হারেনি তারা। এদিকে বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে পিএসজির মুখোমুখি হবে রিয়াল। পিএসজির প্র্যাক ডি প্রিন্সেসে ৬ মার্চ হবে ফিরতি ম্যাচ।