সিলেট জেলায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০১৮ উদ্যাপন

44

‘সময় এখন নারীর: উন্নয়নে তারা; বদলে যাচ্ছে গ্রাম-শহরের কর্ম জীবনধারা’- এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে জেলা প্রশাসন, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও ব্র্যাক, শেভরন, আইডিয়াসহ সমমনা সকল সরকারী ও বেসরকারী সংগঠনের উদ্যোগে ৮ মার্চ ২০১৮ তারিখে জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ে মানববন্ধন, নারী উন্নয়ন মেলা, নারী সমাবেশ ও নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে ঋণ বিতরণ এবং আলোচনা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত হয়।

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের সম্মুখের রাস্তায় জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে মানববন্ধনের মধ্য দিয়ে দিবসটি সুচনা করা হয়। মানববন্ধন শেষে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মহোদয় ফিতা কেটে নারী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেন। অত:পর আইডিয়ার এডভোকেসী এসোসিয়েট তামান্না আহমেদের সঞ্চালনায় জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনা আক্তারের সভাপতিতে নারী দিবসকে লক্ষ্য করে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসিবে উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। প্রধান অতিথির বক্তবে তিনি নারী উদ্যোগক্তাদের এগিয়ে আসা এবং দেশের উন্নয়নের নারীর ভূমিকাকে তুলে ধরেন। প্রধান অথিতি জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ে স্থাপিত হস্তশিল্প কেন্দ্র “নিবেদিতা’’ উদ্ভোধন করেন ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনাব নুমেরী জামান, জেলা প্রশাসক সিলেট। তিনি নারীর ক্ষমতায়নে নারীকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। বিশেষ অথিতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শেভরন বাংলাদেশের গর্ভমেন্ট রিলেশন ম্যানেজার সামাদ চেীধুরী, সনাক সভাপতি আজিজ আহমেদ সেলিম। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন টিআইবি’র কোর্ডিনেটর চিত্ত রঞ্জন রায়, ব্র্যাক জীবিকা প্রকল্পের উপজেলা ব্যবস্থাপক ড. মসউদ আহমদ, ব্লাস্টের এডভোকেট শরিফা বেগম এবং গ্রাম আদালত সমন্বয়কারী জনাব শাহিদা আক্তার। সভা শেষে প্রধান অতিথিসহ সকলে নারীর উন্নয়ন মেলার স্টল পরিদর্শন করেন। অত:পর সভাপতি তার বক্তব্যের মাধ্যমে প্রথম পর্বে সমাপনী ঘোষনা করন।

দ্বিতীয় পর্বে নারীর ক্ষমতায়নে নারী সমাবেশে তথ্য অফিস কর্তৃক ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগীয় তথ্য অধিদপ্তরের উপ পরিচালক জনাব জুলিয়া যেসমিন মিলি। বিকাল ৪.০০ঘটিকায় সমাপনী অনুষ্ঠানে নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে চার লক্ষ নব্বই হাজার টাকা ক্ষুদ্রঋণ বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সদর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব সিরাজাম মুনিরা।

উল্লেখ্য, ব্র্যাক-শেভরন যৌথ উদ্যোগে এবং সহযোগী সংস্থা আইডিয়া’র বাস্তাবায়নে অক্টোবর ২০১৫ হতে বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের ১১২টি গ্রাম উন্নয়ন সংগঠনের মাধ্যমে প্রায় ২০,০০০ দরিদ্র্য জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে এবং সাংগঠনিক সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জীবিকা প্রকল্পের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি জীবিকা প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য হল নারীর উন্নয়ন, অংশগ্রহন ও ক্ষমতায়ন। জীবিকা প্রকল্পের অধীনে ভিডিওগুলোতে মোট সদস্যে ৬০ শতাংশ নারী এবং ভিডিও-এর পরিচালানা পর্ষদের মোট সদস্যে ৬০ শতাংশ নারী রয়েছে। প্রকল্পের অধীনে ইতোমধ্যেই ১০৫৭ জন নারী ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা হিসেবে প্রশিক্ষণ গ্রহনের পাশাপাশি প্রশিক্ষণ পরবর্তীতে তারা ব্যবসার সাথে যুক্ত হচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি