সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে মামলা

37

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
ইয়েমেনে চলা নির্যাতন ও অমানবিক আচরণে সহযোগিতা করার অভিযোগ সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে ফ্রান্সের একটি আদালতে মামলা করেছে ইয়েমেনের একটি মানবাধিকার সংস্থা। অন্যদিকে সৌদি আরবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যুবরাজের বিরুদ্ধে মামলা হাস্যকর বিষয়। কারণ ইয়েমেনের পরিস্থিতির জন্য হুথিরাই দায়ী। সৌদি যুবরাজ বর্তমানে রাষ্ট্রীয় সফরে ফ্রান্সে অবস্থান করছেন।

লিগাল সেন্টার ফর রাইটস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের পরিচালক তাহা হুসেন মুহামেদের করা ওই মামলায় বলা হয়েছে, ইয়েমেনের সাধারণ মানুষ হতাহত হয়েছে যেসব হামলায় সেসব হামলার দায় যুবরাজ সালমান এড়িয়ে যেতে পারেন না। কারণ সৌদি যুবরাজ একই সঙ্গে সৌদি আরবের দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রীও।

এই মামলার আর্জির সঙ্গে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, অ্যামেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং অক্সফামের মতো সংস্থার প্রতিবেদন যুক্ত করা হয়েছে।অন্যদিকে প্যারিসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দেল আল-যুবায়ের বলেন, হুথিদেরই ইয়েমেন যুদ্ধের জন্য দায়ী করা উচিত। কারণ আগ্রাসন তারাই চালাচ্ছে। হুথিরা সৌদি আরবের রাহধানি রিয়াদে ক্ষেপণাস্ত্র হামলাও করেছে।

এদিকে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে অস্ত্র বিক্রি কমিয়ে দেয়ার দাবিতে ফ্রান্সে প্রেসিডেন্টের ওপরও চাপ বাড়ছে। ফ্রান্স বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অস্ত্র রপ্তানিকারক দেশ এবং সৌদি আরব তাদের অস্ত্রের বড় ক্রেতা।অনেকেই মনে করছেন ফ্রান্স ও সৌদি আরবের সম্পর্ক এখন অনেকটাই স্পর্শকাতর অবস্থায় রয়েছে।তাই এই মামলাটি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে বিব্রত করতে পারে।