বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে : শিল্পমন্ত্রী

13

নিউজ ডেস্ক::
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, সকল গণতান্ত্রিক দেশে যে পদ্ধতিতে নির্বাচন হয়, এদেশেও সেই পদ্ধতিতে নির্বাচন হবে।

তিনি বলেন, সকল গণতান্ত্রিক দেশে বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন হয়। তাই বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার দুপুরে মেহেরপুর জেলায় মুজিবনগর আম্রকাননের শেখ হাসিনা মঞ্চে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও মেহেরপুর জেলা প্রশাসন আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আমু বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকল ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে চিহিৃত হয়েছেন। তিনি দেশের মানুষের ভাগ্যর পরিবর্তনের স্বীকৃতি হিসাবে ২৭টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ থেকে নিম্নমধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত হয়েছে।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক, আবদুর রহমান এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, জাতীয় সংসদের হুইপ সোলাইমান হক জোয়ার্দার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন এমপি, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সহকারি সাইফুজ্জামান শেখর, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দীন খান, মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়া উদ্দিন বিশ্বাস প্রমুখ।

সমাবেশে সঞ্চালনা করেন মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক।সভাপতির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে হবে। এর কোন বিকল্প নাই।

অন্য কোন পদ্ধতিতে নির্বাচন হবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন হবে না। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশে যেভাবে নির্বাচন হয় সেভাবেই নির্বাচন হবে। বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপি নেত্রী জেলে গেছেন দুর্নীতির দায়ে। ১০ বছর আগে মামলা হয়েছিল। সেই মামলায় তিনি কনটেষ্ট করেছেন। রায় হয়েছে, তিনি জেলে গিয়েছেন।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ১৭ এপ্রিল ছাড়া বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস সম্ভব নয়। যারা এই ১৭ এপ্রিল পালন করে না তারা স্বাধীনতাকে স্বীকার করে না।

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, এই মুজিবনগর মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিকেন্দ্রে নতুন করে ৩শ’ কোটি টাকা বরাদ্দ ব্যয়ে নতুন প্রকল্প চালু করতে যাচ্ছি। প্রায় ৩৫ একর জমি অধিগ্রহণ করা হবে। যাদের জমি অধিগ্রহণ করা হবে তাদের পুনর্বাসন করা হবে।

এর আগে সকাল পৌঁনে ১১টার দিকে জাতীয় নেতৃবৃন্দ মেহেরপুরে পৌঁছে মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। পরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন।পতাকা উত্তোলন শেষে আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের পরিবেশনায় জল মাটি ও মানুষ শীর্ষক গীতিনাট্য পরিবেশনা ও পুলিশ, বিজিবি, বিএনসিসি ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়।