ইরাকে চলছে পার্লামেন্টারি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ

7

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
ধর্মভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট অব ইরাক অ্যান্ড দ্য লেভান্ত (আইএসআইএল) বা আইএস এর পতনের পর প্রথমবারের মতো পার্লামেন্টারি নির্বাচনে ভোট দিচ্ছেন ইরাকের মানুষ। শনিবার শুরু হয়েছে এ ভোটগ্রহণ।গ্রিনিচ মান সময় ভোর চারটা থেকে শুরু হয়ে এই ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল তিনটা পর্যন্ত।

এই নির্বাচনে ৩২৯টি আসনের বিপরীতে লড়ছেন প্রায় সাত হাজার প্রার্থী। তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বীতার আভাস পাওয়া গেছে বর্তমান ক্ষমতাসীন জোট এবং প্রধান বিরোধী জোটের মধ্যে। এবার নির্বাচনে আগের যেকোনো সময়ের তুলনায় বেড়েছে নারী ভোটার ও প্রার্থীর সংখ্যা।

উল্লেখ্য, আইএস এর সঙ্গে দীর্ঘ চার বছরের যুদ্ধের পর এখন পুনঃনির্মাণ প্রক্রিয়া চলমান ইরাকের সর্বত্র।তবে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, এই নির্বাচনেই যারাই জয়ী হোক, তাদের প্রধান লক্ষ্য হওয়া উচিত বিভিন্ন দল ও গোষ্ঠীর মধ্যে ঐক্য পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা।

এই নির্বাচনে শিয়া ও সুন্নী প্রার্থী ছাড়াও রয়েছেন একাধিক শক্তিশালী কুর্দি প্রার্থী। প্রসঙ্গত, শিয়া সমর্থিত সরকারের প্রচেষ্টায়ই আইএস দমনে সক্ষম হয়েছে দেশটি। নিরাপত্তা ব্যবস্থায়ও আনা হয়েছে আমূল পরিবর্তন।

তবে এই নির্বাচনকে ঘিরে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বিবেচনায় আনা হচ্ছে। তা হলো- ইরানের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণু চুক্তি বাতিলের মাত্র একদিন পরেই এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইরাকি জনগণের আশঙ্কা, ভবিষ্যতে ইরান-যুক্তরাষ্ট্র দ্বন্দের আঁচ আবারও বিধ্বস্ত করতে পারে ইরাককে।
খবর- বিবিসি।