মঙ্গলে যাবে নাসার মার্স হেলিকপ্টার

25

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
প্রথমবারের মতো মঙ্গল গ্রহে হেলিকপ্টার পাঠাতে যাচ্ছে মহাকাশ গবেষণাবিষয়ক মার্কিন সংস্থা (নাসা)। সেখানে কোনো যান উড়তে সক্ষম কি না, মূলত সেটি খতিয়ে দেখতেই হেলিকপ্টারটি সেখানে পাঠানো হবে।

নাসা জানিয়েছে, তাদের ‘মার্স রোভার’-এর সদস্য হবে এ হেলিকপ্টার। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘মার্স হেলিকপ্টার’। ওজন এক কেজি ৮০০ গ্রাম। নাসার এক দল বিজ্ঞানীর চার বছরের শ্রমে তৈরি হয়েছে নতুন এ মঙ্গল যানটি। আপাতত ২০২০ সালে এটি মঙ্গলে পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে নাসা।

বিবিসির খবরে বলা হয়, হেলিকপ্টারটি মঙ্গলে যেন উড়তে পারে, সেভাবেই বানানো হয়েছে। কারণ, মঙ্গল গ্রহের ঘনত্ব পৃথিবীর ঘনত্বের প্রায় ১০০ ভাগের এক ভাগ।

নাসা বলছে, হেলিকপ্টারটি ‘এয়ার এয়ারক্রাফট’-এর চেয়ে ভারী। কারণ, ‘এয়ার এয়ারক্রাফট’ বলতে সাধারণত বেলুন ও ‘অ্যারোস্ট্যাট’ বোঝানো হয়। ভেনাসের বায়ুমণ্ডলে এর আগে দুটি বেলুন পাঠানো হলেও হেলিকপ্টারের মতো কোনো যান আজ পর্যন্ত ভিনগ্রহে পাঠানো হয়নি।

নাসার এ হেলিকপ্টারে দুটি পাখা আছে। এগুলো মিনিটে তিন হাজার বার ঘুরতে সক্ষম। পৃথিবীতে যেসব হেলিকপ্টার আছে, সেগুলোর পাখা সাধারণত মিনিটে ৩০০ বার ঘুরতে পারে।

নাসার প্রশাসক জিম ব্রিডেনস্টাইন বলেন, ভিনগ্রহে হেলিকপ্টার পাঠানোর অভিযান অনেক রোমাঞ্চকর। মঙ্গল নিয়ে আমাদের গবেষণায় এ অভিযান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে ২০১৩ সাল থেকেই এই প্রযুক্তি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হচ্ছিল। এবার এক মাস ধরে হেলিকপ্টারটির ‘ট্রায়াল’ হবে পৃথিবীতে। তারপর মঙ্গলে যাবে হেলিকপ্টারটি।
সূত্র : বিবিসি