গাড়ী চাপায় পাকিস্তানি হত্যা, মার্কিন কর্নেলকে ইসলামাবাদ ত্যাগে বাধা

17

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
পাকিস্তানে কর্মরত মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তা কর্নেল জোসেফ হলকে পাকিস্তান ত্যাগে বাধা আরোপ করা হয়েছে। শনিবার মার্কিন সামরিক বিমানে করে পাকিস্তান থেকে পালানোর চেষ্টা করেন তিনি। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে এক পাকিস্তানি মোটরবাইক আরোহীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে কর্নেল হলের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, শনিবার মার্কিন বিমানবাহিনীর পরিবহন বিমান সি-১৩০ ইসলামাবাদে অবতরণ করে। যুক্তরাষ্ট্রে চলে যেতে দূতাবাসের আট সঙ্গীসহ বিমানঘাঁটিতে পৌঁছান কর্নেল হল। পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার দায়িত্বরত কর্মকর্তারা হলকে চিনতে পেরে তার পাসপোর্ট নিয়ে যান। তার পাকিস্তান ত্যাগের অনুমতি আছে কি-না জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের কাছে সেই খবর নেন। পরে জানতে পারেন, তাকে পাকিস্তান ছাড়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি। এরপর সঙ্গীদের নিয়ে দূতাবাসে ফিরে যান কর্নেল হল। তবে, যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের মুখপাত্র এ বিষয়ে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, সংযোগ সড়কে লাল বাতি থাকা সত্ত্বেও একটি সাদা ফোর হুইল গাড়ি তা অতিক্রম করছে। সে সময় ওই মোটরসাইকেলের সঙ্গে গাড়িটির সংঘর্ষ হয়। এ সময় গাড়িটি কর্নেল হল চালাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ। তবে কর্নেল হল মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন বলে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা নাকচ করেছে মার্কিন দূতাবাস।

এর আগে, ওই দূর্ঘটনায় নিহত আতিক বেগের বাবা ইসলামাবাদের হাইকোর্টে কর্নেল হলের বিচারের দাবি তুলেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার ইসলামাবাদ হাইকোর্ট রুল জারি করেছে যে, কর্নেল হল সম্পূর্ণভাবে কূটনৈতিক অব্যাহতি পাবেন না।ইতোমধ্যেই তার নাম ভ্রমণের কালো তালিকায় যোগ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
সূত্র: দ্য ডন, বিবিসি