দুই পা নেই, তবুও পর্বতারোহণে সফল নারী

30

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
শরীর যাই হোক না কেন, লক্ষ্য পূরণে মনের ইচ্ছেই যে বড় তার প্রমাণ এই দুই পা হারানো নারী। ম্যান্ডি হোভার্থ নামে ২৪ বছর বয়সী নারী পাহাড়ে উঠতে কোনো সরঞ্জাম ব্যবহার করেন না। পা ছাড়াই তিনি হাতের সাহায্যে উঠে যেতে পারেন পাহাড়ের ওপর। সিঁড়ি দিয়েও উঠতে পারেন দীর্ঘ পথ।

ম্যান্ডি বাস করেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো রাজ্যে। পর্বতারোহনের জন্য কোনো প্রশিক্ষণই নেননি তিনি। নিবেনই বা কীভাবে! প্রশিক্ষক-প্রশিক্ষণার্থী সবাই তো শক্তসমর্থ সুস্থ মানুষ। হয়ত পাহাড়ে চড়তে পারেন এটা ভাবতেই পারবেন না তারা।

২০১৪ সালে এক ট্রেন দুর্ঘটনায় ম্যান্ডি তার দুই পা হারান। এরপর তার জীবন নিয়েই সংশয় ছিল। মেরুদণ্ডতেও কোনো শক্তি পাবেন না বলে ধারণা করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পা হারালেও মেরুদণ্ড দুর্বল হওয়ার বদলে প্রচণ্ড শক্তিশালী হয়ে ওঠে ম্যান্ডির। ফলে দিব্যি পাহাড়-পর্বত পাড়ি দিতে পারছেন তিনি।

সম্প্রতি ম্যান্ডি কলোরাডো রাজ্যের ম্যানিটো ইনক্লাইন পর্বতে উঠে যান কোনো সাহায্য ছাড়াই। এটি দুই হাজার ফুট উঁচু একটি শৃঙ্গ। আর এজন্য তিনি তার দুই হাত ও মেরুদণ্ড ব্যবহার করেন। এতে তার সময় লাগে প্রায় চার ঘণ্টা।

ম্যানিটোতে ওঠার পথটির অধিকাংশ স্থানেই অবশ্য সিঁড়ি বসানো রয়েছে। তবে তার সংখ্যাও কম নয় ২,৭০০। এতগুলো সিঁড়ি ভেঙে প্রায় ১.৪ কিলোমিটার পার হতে হয়। আর এ পথটি যে কোনো সুস্থ মানুষের জন্যই কঠিন।

এর আগে কোনো দুই পা হারানো ব্যক্তি কোনো সাহায্য ছাড়া পাহাড়ের এতটা ওপরে উঠেছেন এমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।