জাদুর কাঠি আছমা-শ্যামার হাতে!

101

স্টাফ রিপোর্টার ::
সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও সদ্য সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর স্ত্রীদের সম্পদের বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বদরুজ্জামান সেলিম। কি জাদুর কাঠি আছে তাদের স্ত্রী আছমা-শ্যামার হাতে!
গতকাল রোববার সিলেট নগরীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে কামরান ও আরিফের স্ত্রীরা কোন জাদুর মন্ত্রে এতো সম্পদের মালিক হয়েছেন বলে প্রশ্ন রাখেন সেলিম। আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত কামরান ও বিএনপি মনোনীত আরিফের সাথে মেয়র পদের জন্য সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিমও মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে বদরুজ্জামান সেলিম বলেছেন, সাবেক মেয়রদের এবং তাদের স্ত্রীদের সম্পদের হিসেব হলফনামায় উল্লেখ করে নগরবাসীকে পরিহাস করেছেন। ভোট দেওয়ার আগে নগরবাসীকে এটাও চিন্তা করা উচিত।
মেয়র পদটি কি টাকা কামানোর মেশিন এমন প্রশ্ন রেখে সেলিম বলেন, ২০১৮ সালে কি তারা আলাদীনের প্রদীপ পেয়ে গেছেন। বদর উদ্দিন আহমদ কামরান এবং আরিফুল হক চৌধুরী মেয়র হবার আগের আয়কর ফাইলের বিবরণীটাও নগরবাসী জানতে চায়।
এবারের সিলেট সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে নিজেকে দরিদ্র দাবি করে সেলিম বলেন, আমি আমার প্রথম কর্মজীবনে একজন শিক্ষক ছিলাম। নগরীর ঐতিহ্যবাহী দি এইডেড হাই স্কুলের শিক্ষক হিসেবে আমার কর্মজীবন শুরু করি। বি.এ. ও এল.এল.বি পাশ করে দেশ ও জনগণের খেদমতে নিজেকে নিয়োজিত করি। আমার মা শিক্ষিকা ছিলেন এবং আমার স্ত্রীও শিক্ষিকা।
প্রসঙ্গত, এবারের সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদের স্ত্রী মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসমা কামরানের সম্পদ গত ৫ বছরে বেড়েছে দ্বিগুণ।
হলফনামার তথ্য অনুযায়ী, আসমা কামরানের তিন কোটি ৪৫ লাখ এক হাজার ৩৯০ টাকা মূল্যের আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবন রয়েছে। আর অকৃষি জমি রয়েছে দুই কোটি ৩০ লাখ ১৩ হাজার ৫৩১ টাকার।
অস্থাবর সম্পদের মধ্যে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমা আছে দুই কোটি পাঁচ লাখ ৯৪ হাজার ২০০ টাকা। সাড়ে ৬ লাখ টাকা মূল্যের একটি গাড়ি এবং প্রায় ১৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা মূল্যের অলংকার, বন্ড, ঋণপত্র ও শেয়ার, আসবাবপত্র, ইলেকট্রনিক সামগ্রী রয়েছে আসমার।
এদিকে, সদ্য সাবেক এবং এবারের সিটি নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর স্ত্রী শ্যামা হক চৌধুরীর আয় ছয় লাখ ৬৮ হাজার ৩০০ টাকা বলে হলফনামায় উল্লেখ করেন আরিফ।
হলফনামার তথ্য অনুযায়ী, নগদ ১৩ লাখ ১৫ হাজার ২২২ টাকা, পোস্টাল সেভিংসে ২ লাখ টাকা, ১১ লাখ ৩০ হাজার টাকা মূল্যের পিকআপ, ১ লাখ ১২ হাজার টাকা মূল্যের অলঙ্কার, ৪৫ হাজার টাকার ইলেকট্রনিক সামগ্রী, এক লাখ ৫৩ হাজার ৪৫০ টাকার আসবাব, ০.০৮ একর অকৃষি জমি, একটি সেমিপাকা দালান রয়েছে আরিফের স্ত্রী শ্যামা হকের নামে।