আজ থেকে হজ ফ্লাইট শুরু

17

সবুজ সিলেট ডেস্ক ::

এ বছর হজযাত্রীদের সৌদি আরব যাওয়ার ফ্লাইট শুরু হচ্ছে আজ থেকে। সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে ৪১৯ হজযাত্রী নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম হজ ফ্লাইট বিজি-১০১১ জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়ে যাবে। এ ফ্লাইট ১৫ আগস্ট পর্যন্ত চলবে। ফ্লাইট শিডিউল অনুযায়ী আগে থেকেই আশকোনা হজ ক্যাম্পে অবস্থান করে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিচ্ছেন দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত হজযাত্রীরা।

বিমান সূত্র জানায়, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল ও ধর্মবিষয়ক মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে বিমানের প্রথম ফ্লাইটের হজযাত্রীদের বিদায় জানাবেন। অবশ্য এর আগে ভোর পৌনে ৪টায় সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের (সৌদিয়া) প্রথম হজ ফ্লাইট আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকা ছাড়বে। আজ পর্যায়ক্রমে বিমানের চারটি ও সৌদিয়ার ছয়টি হজ ফ্লাইটের শিডিউল রয়েছে। ধর্মমন্ত্রণালয়, হজ অফিস ও বিমান সূত্রে জানা গেছে, সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী এ বছর বাংলাদেশ থেকে হজে যাবেন ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬ হাজার ৭৯৮ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ যাত্রী। বিমান ও সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স যৌথভাবে এসব হজযাত্রী পরিবহন করবে।

সূত্রমতে, এবার ৫২৮টি বেসরকারি এজেন্সি হজ কার্যক্রম পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। আগামী ২১ আগস্ট (চাঁদ দেখাসাপেক্ষে) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। ১১ জুলাই আশকোনায় হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিমান কর্তৃপক্ষ জানায়, আজ উদ্বোধনী ফ্লাইট ছাড়াও হজ ফ্লাইট বিজি-৩০১১ বেলা ১১টা ৫৫ মিনিটে, বিজি-৫০১১ বিকাল ৩টা ৫৫ মিনিটে এবং শিডিউল ফ্লাইট বিজি-০০৩৫ রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বে। নির্ধারিত সময়, নির্বিঘেœ হজ ফ্লাইট পরিচালনার সব প্রস্তুতি এরই মধ্যে সম্পন্ন করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকেও এ বছর যথাক্রমে ৯টি ও তিনটি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এ বছর হজ ফ্লাইট ও শিডিউল ফ্লাইটে মোট ৬৩ হাজার ৫৯৯ (ব্যালটি ও নন-ব্যালটি) ধর্মপ্রাণ মুসলমান হজ পালনে বিমানে জেদ্দা যাবেন। এসব হজযাত্রীর ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে পরিবহনের জন্য বিমানের চারটি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজ প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে চলাচলকারী বিমানের নিয়মিত শিডিউল ফ্লাইটেও হজ যাত্রীরা পবিত্র ভূমিতে যাবেন।

পবিত্র হজের গুরুত্ব ও ধর্মপ্রাণ মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স একটি সর্বাঙ্গ-সুন্দর হজ কার্যক্রম পরিচালনায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। বিমানের পক্ষ থেকে সব হজ এজেন্সিকে হজযাত্রীদের দ্রুত টিকিট সংগ্রহের অনুরোধ করা হয়েছে। সূত্রমতে, প্রত্যেক হজযাত্রী বিনামূল্যে সর্বাধিক দুটি ব্যাগে ৪৬ কেজি মালামাল বিমানে এবং কেবিন ব্যাগেজে ৭ কেজি মালামাল সঙ্গে নিতে পারবেন। কোনো অবস্থাতেই প্রতিটি ব্যাগের ওজন ২৩ কেজির বেশি হতে পারবে না। প্রত্যেক হজযাত্রীর জন্য ৫ লিটার করে জমজমের পানি ঢাকা/চট্টগ্রাম/সিলেট নিয়ে আসা হবে। হাজীরা ফেরত আসার পর তাদের তা বুঝিয়ে দেওয়া হবে। কোনো অবস্থাতেই হাজীরা সঙ্গে করে বিমানে পানি আনতে পারবেন না। যে কোনো ধারালো বস্তু যেমন ছুরি, কাঁচি, নেইল কাটার, ধাতব নির্মিত দাঁত খিলান, কান পরিষ্কারক, তাবিজ ও গ্যাস জাতীয় বস্তু যেমন অ্যারোসল এবং ১০০ (এমএল) এর বেশি তরল পদার্থ হ্যান্ড ব্যাগেজে বহন করা যাবে না। কোনো প্রকার খাদ্যসামগ্রী সঙ্গে নেওয়া যাবে না। বিমান কর্তৃক পরিচালিত ডেডিকেটেড হজফ্লাইটগুলোর চেকইন, ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস আনুষ্ঠানিকতা প্রতিবারের মতো এবারও হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন আশকোনা হজ ক্যাম্পেইনে সম্পন্ন করা হবে। ধর্মমন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের বাড়ি ভাড়া সম্পন্ন করা হয়েছে। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের পক্ষে অধিকাংশ এজেন্সি বাড়ি ভাড়া সম্পন্ন করেছে। এ বছর বাংলাদেশ বিমানের টিকিট পাওয়া সহজ করতে এজেন্সিগুলো সরাসরি বাংলাদেশ বিমান থেকে হজযাত্রীর সমপরিমাণ টিকিট সংগ্রহ করতে পারবে।