‘বাংলা দখলের’ ডাক মমতার

60

জার্নাল ডেস্ক ::
ভারতের প্রধানমন্ত্রীত্বের জন্য একরকম মুখিয়েই আছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। আর তাই বাংলা থেকে ৪২ টি প্রাদেশিক আসনের সব কয়টি আসনই দখলের অঙ্গীকার করলেন তৃণমূল নেত্রী। শনিবার (২১ জুলাই) তৃণমূলের শহিদ দিবসের সভামঞ্চে বক্তব্যের শুরু থেকেই একের পর এক ইস্যুতে বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়ান তৃণমূলনেত্রী। সেই সঙ্গে জানিয়ে দিলেন ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেডের জনসভা থেকে ২০১৯ সালের ভোটে দিল্লি দখল করবে তৃণমূল কংগ্রেস। খবর- সংবাদ প্রতিদিন।

কদিন আগেই পশ্চিমবঙ্গে এসে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ দাবি করেছিলেন রাজ্যে অন্তত ২২টি লোকসভা আসন পাবে বিজেপি। রাজ্য নেতাদের জন্য ৫০ শতাংশ আসন জয়ের লক্ষ্যমাত্র বেঁধে দিয়েছিলেন অমিত শাহ। শনিবারের জনসভা থেকে মমতা ব্যানার্জি দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে মমতা বলেন, শতভাগ আসনই দখল করতে হবে।

শহিদ দিবসের বক্তব্যের শুরুতেই তৃণমূলনেত্রী অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেন, ‘আমাদের ২১-এর অঙ্গিকার, ২০১৯-এর ৪২ আসনের ৪২ আসন দখল করা।’ আপাতত পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে ৩৪টি আসন রয়েছে তৃণমূলের দখলে। চারজন সাংসদ রয়েছে কংগ্রেসের, ২ জন করে সাংসদ রয়েছে সিপিএম এবং বিজেপির। কিন্তু লোকসভা ভোটের পর থেকে যেভাবে বিরোধী দলগুলোতে ভাঙন ধরা শুরু হয়েছে তাতে তৃণমূলনেত্রীর আশাবাদী হওয়াটাই স্বাভাবিক বলে মনে করে ভারতের রাজনৈতিক মহল।

শুধু রাজ্যের ৪২ আসন নয়, তৃণমূল নেত্রীর লক্ষ্য দিল্লি অর্থাৎ কেন্দ্রীয় শাসনভার থেকে বিজেপিকে উৎখাত। সেই লক্ষ্য ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেডে বিজেপি বিরোধী সমাবেশের ডাক দিলেন তৃণমূলনেত্রী। সেই মঞ্চে হাজির থাকবেন ভারতের সব বিরোধী দলগুলোর নেতারা। উপস্থিত থাকবেন ফেডারেল ফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা।

মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘গোটা দেশের সব বিরোধী নেতাদের একমঞ্চে হাজির করব, বাংলা আগামী দিনে ভারতকে পথ দেখাবে।’ ২১-এর মঞ্চ থেকেই তৃণমূলনেত্রীর ঘোষণা আগামী লোকসভা নির্বাচনে টেনেটুনেও ১৬০টির বেশি আসন কোনোভাবেই পাবে না।

মমতার আশা, তার পরিকল্পনা মতোই আগামী লোকসভায় দিল্লিতে ক্ষমতা দখল করবে বিরোধী জোট, আর আগামী বছর ২১ জুলাই হবে তৃণমূলের ‘ভারত জয়’ করার ২১ জুলাই।