পাকিস্তানে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে ভোট শুরু

22

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষো সারা দেশে কঠোর নিরাপত্তা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ‘ডন’।

এদিকে ভোট উপলক্ষে আজ বুধবার সে দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। তবে উৎসাহী ভোটাররা সকাল ৬টা থেকেই ভোটকেন্দ্রগুলোতে জড়ো হতে শুরু করেছেন বলে জানা গেছে। একটানা ভোট চলবে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। এরপরই শুরু হবে ভোট গণনা। রাত ৯টা থেকেই নির্বাচনী ফলাফল সংক্রান্ত খবর প্রকাশ্যে আসতে থাকবে৷ ছবি স্পষ্ট হবে মধ্যরাতে। দেশটিতে বৈধ ভোটোরের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১০ কোটি।

বুধবার পাকিস্তানের চার প্রদেশ পাঞ্জাব, বালোচিস্তান, খাইবার পাখতুনখওয়া এবং সিন্ধুতে একই সঙ্গে ভোট হচ্ছে।

এদিকে নির্বাচন উপলক্ষে দেশ জুড়ে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা। শান্তিপূর্ণ ভোটদান নিশ্চিত করতে ভোটকেন্দ্রগুলোতে মোট আট লাখ নিরাপত্তা সদস্য মোতায়েত করা হয়েছে যার মধ্যে ৩ লাখ ৭১ হাজার ৩৮৮ জন সেনা। এর আগে পাকিস্তানের কোনো নির্বাচনে এত বিপুল সংখ্যক সেনা মোতায়েন করা হয়নি।

এ নির্বাচনে সবমিলিয়ে ১১৮৫৫জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। তবে মূল লড়াই হবে সাকে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন, অন্যতম বিরোধী নেতা ইমরান খানের পিটিআই ও প্রয়াত বেনজির ভুট্টোর পুত্র বিলাবল ভুট্টোর দল পিপিপি-র মধ্যে৷ তবে দুর্নীতি মামলায় ১০ বছর সাজা হওয়ার কারণে এ নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না কারাবন্দী নওয়াজ শরিফ। তার বদলে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন তার ভাই শাহবাজ শরিফ৷