শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরার অনুরোধ সাকিবের

18

স্পোর্টস ডেস্ক
বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার জের ধরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করেছ। শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা নেমে এসেছে রাস্তায়। হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা বিভিন্ন সড়কে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে। যানবাহনের লাইসেন্স পরীক্ষাসহ রাস্তা বিশৃঙ্খলভাবে যানবাহন চলাচলও নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে শিক্ষার্থীরা।

মূলত, নিরাপদ সড়কসহ ৯ দফা দাবি নিয়েই রাস্তায় নামে ছাত্র-ছাত্রীরা। সরকারের পক্ষ থেকে দাবি মানার ঘোষণা দেওয়া হলেও মানছে না শিক্ষার্থীরা। তারা চাইছে দাবিগুলোর বাস্তবায়ন। আন্দোলন শুরু হওয়ার তিনদিন পর সরকারসহ বিভিন্ন মহল থেকে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে। কিন্তু দাবি আদায় না করে ক্লাসে ফিরবে না বলছে শিক্ষার্থীরা।

এবার জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও শিক্ষার্থীদের ঘরে ফেরার আহ্বান জানালেন। শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেজে এক পোস্টে এ আহ্বান জানান। পোস্টে তিনি লিখেছেন, আমি এখন ফ্লোরিডায় আছি। আজ এক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে আমার তরুণ ফ্যানদের উদ্দেশ্যে কিছু বলতে চাই।

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই স্কুল শিক্ষার্থী দিয়া ও আবদুল করিম নিহত হওয়ার ঘটনায় আমি প্রচণ্ড মর্মাহত ছিলাম। কিন্তু যখন দেখলাম তার সহপাঠী থেকে শুরু করে সারাদেশের ছাত্র-ছাত্রীরা দোষীদের শাস্তি দাবি ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছে। তখন গর্ববোধ করেছি বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে। দেশে থাকলে আমিই তোমাদের অটোগ্রাফ নেয়ার জন্য চলে আসতাম।’

তোমাদের সাধুবাদ জানিয়ে বলতে চাই, তোমাদের দাবি কার্যকর হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিহত দু’জনের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা ছাড়াও নিরাপদ সড়ক আইন করতে আন্তরিকভাবে কাজ করছেন। ইতোমধ্যে অভিযুক্ত পরিবহনের রুট পারমিট বাতিলসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ অবস্থায় তোমাদের কাছে বিনীত অনুরোধ করবো, ক্লাসে ফিরে পড়াশোনায় মনোনিবেশ করতে। তোমরা যা করেছ তা এদেশে ইতিহাস হয়ে থাকবে।’

‘এ অর্জন সফল হবে তোমাদের পড়ার টেবিলে ফিরে যাওয়ার মাধ্যমে। তোমাদের দাবি পূরণ হয়েছে এবং হচ্ছে। ব‍্যত‍্যয় ঘটলে আমাকে পাবে তোমাদের সাথে।’

গত ২৯ জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের দু’টি বাসের পাল্লাপাল্লিতে বিমানবন্দর সড়কে রাস্তার পাশে দাঁড়ানো একদল শিক্ষার্থীর উপর উঠে যায়। তাতে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হলে ক্ষোভে ফেটে পড়া তাদের সহপাঠীরা সড়ক অবরোধ করে বেশ কয়েকটি বাস ভাঙচুর করে। পরে এ ঘটনায় গোটা দেশ উত্তাল হয়।

এ ঘটনায় জাবালে নূর পরিবহনের মালিক, চালক ও হেলপারকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।