‘এই সরকারের আমলে বিদ্যুত ও জ্বালানী খাতে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জিত হয়েছে’

23

জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ ২০১৮

সবুজ সিলেট ডেস্ক
সিলেট-৩ আসনের এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী, সাহসী ও সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও বাস্তবায়নের ফলে বিদ্যুত ও জ্বালানী খাতে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জিত হয়েছে। একটি উন্নত দেশে পরিণত করতে বর্তমান সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ২০৪১ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের মহাপরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। বিদ্যুত ও জ্বালানী খাত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহাজোট সরকারের ধারাবাহিকতায় বর্তমান সরকারের আমলে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখে আলোর পথে আরও একধাপ এগিয়ে। এ সব পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সরকারের বিদ্যুত ও জ্বালানী খাতে উল্লেখযোগ্য সফলতা অর্জিত হয়েছে। এখন সরকার বড় প্রকল্পের দিকে বিশেষ নজর দিচ্ছে।

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর উদ্যোগে জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সপ্তাহ-২০১৮ পালন উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথাগুলো বলেন।

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মো. মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে ও আরইবি সিলেট জোন তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. মোস্তফার পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন এস.এম.পি (দক্ষিণ) উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আজবাহার আলী শেখ পিপিএম।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সেবা সদস্য এজিএম মৃণাল কান্তি চৌধুরী, মো. মহিউদ্দিন এজিএম ও এন্ড এম, গোলাপগঞ্জ শাখার ডিজিএম মামুনুর রশীদ, এজিএম (এডমিন) মিল্টন তালুকদার, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ ফেঞ্চুগঞ্জ এর পরিচালক কামরানুল ইসলাম কামরান, দক্ষিণ সুরমা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ পরিচালক মো. মাহবুব আহমদ, বালাগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ পরিচালক মাহমুদ হোসেন মাসুম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সেরা কর্মকর্তা হিসেবে মামুনুর রশীদ ডিজিএম, কমলেশ বর্মণ ডিজিএম, সেরা গ্রাহক মুমিন ছড়া চা বাগান ও সিলেট গ্যাস ফিল্ড বিয়ানীবাজার কে পুরষ্কার প্রদান করা হয়।

এদিকে, জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ উপলক্ষে বিভিন্ন উপজেলায় বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মাধবপুর প্রতিনিধি জানান, হবিগঞ্জের মাধবপুরে বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির নোয়াপাড়া জোনাল অফিসের উদ্যোগে গতকাল বৃহষ্পতিবার সকালে মাধবপুর উপজেলা পরিষদ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়।

পরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্মা মল্লিকা দে’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি মো. মিজানুর রহমান চকদার, মুক্তিযোদ্ধা সুকোমল রায়, ডিজিএম (কারিগরি) রেজাউল করিম, এজিএম (কম) সজীব পাল, পরিচালক জাকিয়া আক্তার, সহকারী প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

ছাতক প্রতিনিধি জানান, ছাতকে বিদ্যুৎ বিভাগের উদ্যোগে জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুৃষ্ঠিত হয়েছে। সকালে ছাতক বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয় থেকে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীসহ বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। র‌্যালীটি শহর প্রদক্ষিণ করে নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। এর আগে নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন সরদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবেদা আফসারী। ‘অনির্বাণ আগামী’ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে বক্তব্য রাখেন, সহকারী প্রকৌশলী এহসান কবির, উপ সহকারী প্রকৌশলী আবু হোসেন, আলাউদ্দিন, বিদ্যুৎ বিভাগের মাসুক মিয়া, বারেক মিয়া, মুজিবুর রহমান, বিমল চন্দ্র দাস, আখতারুজ্জামান প্রমুখ।

বড়লেখা প্রতিনিধি জানান, মৌলভীবাজারের বড়লেখায় জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহের উদ্বোধন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির উদ্যোগে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন পল্লীবিদ্যুতের ডিজিএম সুজিত কুমার বিশ্বাস। এতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ সোহেল মাহমুদের সভাপতিত্বে ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাওলাদার আজিজুল ইসলামের পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সুন্দর। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ দাস নান্টু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাহেনা বেগম হাছনা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. শরীফ উদ্দিন, উপাধ্যক্ষ একেএম হেলাল উদ্দিন, প্রেসক্লাব সভাপতি অসিত রঞ্জন দাস ও সাধারণ সম্পাদক এপিপি গোপাল দত্ত, পল্লীবিদ্যুতের এলাকা পরিচালক রনজিৎ কুমার দাস, সাংবাদিক আব্দুর রব প্রমুখ।