দেশ পরিচালনায় শেখ হাসিনার বিকল্প নেই : মাহমুদ উস সামাদ

17

লালাবাজারে আওয়ামী লীগের জনসভা

সিলেট-৩ আসনের এম.পি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগ মাটি ও মানুষের সংগঠন। এই সংগঠন এদেশের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নের জন্য অতীত থেকেই নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের জন্য দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। ফলে দেশের ভাবমূর্তি বহিবিশে^ উজ্জল হচ্ছে। এই ধারাবাহিকতায় রক্ষার্থে আগামীতেও শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা পাঠাতে হবে। দেশের সার্বিক উন্নয়নের অংশ হিসেবে আমি এই এলাকার জনপ্রিতিনিধি হিসেবে সরকারের উন্নয়ন যথাযথভাবে বাস্তবায়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছি। যাতে অত্র এলাকার জনগণ সরকারের উন্নয়নের সুফল ভোগ করতে পারে।

চলতি মাসের শেষ দিকে ৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে সিলেট-সুলতানপুর সড়ক ও ৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ ফেরীঘাট থেকে মাইজগাঁও হয়ে পালবাড়ী পর্যন্ত সড়ক সংস্কার ও সম্প্রসারণ কাজের টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষে কাজ শুরু হবে। যতদ্রুত কাজ শুরু করা যায়, সে ব্যাপারে আমার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সড়ক দুটির কাজ সম্পন্ন হলে অত্র এলাকার জনগণ এর সুফল ভোগ করতে পারবেন।

এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী গত শনিবার বিকেলে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজারে লালাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে নৌকার সমর্থনে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

লালাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল ওয়াহাব খোকা খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহিত হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা শহীদুর রহমান শাহীন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ রাজ্জাক হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল করিম হেলাল, শাহ ছমির উদ্দিন, সুফি মিয়া, আসাব আহমদ, দেলওয়ার হোসেন খান, তেতলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসিত রানা।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেনর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, লালাবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি এনাম মিয়া চৌধুরী, লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান রৌশন আহমদ, ফয়জুল হোসেন ফয়লা মেম্বার, জালালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবুল মিয়া, জেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, উপজেলা শ্রমিকলীগের সহ সভাপতি ইসহাক আলী, সাধারণ সম্পাদক আব্বাস আলী, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল বারি, আলম রাজা, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক নুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ সিলেট জেলা সভাপতি ডা. রকিবুল হাসান জুয়েল, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আব্দুল আউয়াল টিপু, সুবেল চৌধুরী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লায়েক আহমদ জিকু, নাজিম উদ্দিন খান, জাকারিয়া উল হক, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছদরুল ইসলাম, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহমদ, তেতলী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নিজামুর রহমান নিজাম, সহ সভাপতি লিটন খান, সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন, সালেহ আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুস সামাদ টিপু, নাজিম আহমদ, নন্দন পাল, ওয়াহিদুর রহমান, উপজেলা রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত গোস্বামী প্রমুখ। শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ছাত্রলীগ নেতা রুহেল আহমদ।

পরে এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী লালাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি অসুস্থ বুলবুল আহমদ চৌধুরীকে দেখতে তার বাড়ীতে যান এবং তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নেন।-বিজ্ঞপ্তি