আওয়ামী লীগের কার্যালয় উদ্বোধন : বক্তব্যের সুযোগ পাননি মোমেন, সভায় হট্টগোল

400

সবুজ সিলেট ডেস্ক
সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সভায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ভাই সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. একে আবুল মোমেনকে বক্তব্যের সুযোগ প্রদান নিয়ে হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। গতকাল শুক্রবার বিকেলে নগরীর চালিবন্দরে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয় উদ্বোধনকালে এ ঘটনা ঘটে। হট্টগোল সত্ত্বেও মোমেনকে বক্তব্যের সুযোগ দেননি আয়োজকরা। একপর্যায়ে অনুষ্ঠানস্থল থেকে চলে আসেন মোমেন।

জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে সিলেট নগরীর চালিবন্দরে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের উদ্বোধন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত হন ড. আবুল মোমেন। আগামী সংসদ নির্বাচনে সিলেট-১ আসনের প্রার্থী হিসেবে যার নাম আলোচিত হচ্ছে। অনুষ্ঠান শুরুর পরই এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলার জন্য আলোচনা সভা সংক্ষিপ্ত করার দাবি উঠে।

এমন দাবিতে আলোচনা পর্ব সংক্ষিপ্ত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী। এই চার নেতার বাইরে কাউকেই সভায় বক্তব্যের সুযোগ দেওয়া হয়নি।

সভায় মিসবাহ উদ্দিন সিরাজের বক্তব্যের পরে মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ এবং মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলম খান মুক্তি সভাস্থলে উপস্থিত অর্থমন্ত্রীর ভাই ও জাতিসংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধ ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে বক্তব্যের সুযোগ দেওয়ার অনুরোধ করেন। এসময় অনেকে মোমেনের বিরোধিতাও করেন। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। শেোষ পর্যন্ত বক্তব্যের সুযোগ পাননি ড. মোমেন।

উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দিতে মাইক হাতে নিয়ো বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেন- মোমেন সাহেব আমাদের বড় ভাই, তিনি সকলের প্রিয়। কিন্তু আজকের সভায় তিনি বক্তব্য রাখছেন না। সিলেট-১ আসনে অর্থমন্ত্রী নির্বাচন না করার ঘোষণা দেওয়ায় তিনিসহ অনেকেই দলের মনোনয়ন চাইবেন। দল যাকে মনোনয়ন দেবে আমরা তার পক্ষেই কাজ করব।