নয়াপল্টনের সেই যুবকের তথ্য চায় পুলিশ : ধরিয়ে দেওয়ার আহ্বান

41

সবুজ সিলেট ডেস্ক
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের গাড়িতে আগুন দেওয়া যুবককে ধরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

বুধবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) ফেসবুক পেজে অগ্নিসংযোগকারী ব্যক্তির ছবি প্রকাশ করে এ আহ্বান জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে তার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য চেয়েছে পুলিশের এই বিশেষ ইউনিট।

সন্ধানদাতাকে ০১৭১৩-৩৭৩১৪৭ নম্বরে ফোন দিয়ে জানানোর কথা বলা হয়েছে।

সিটিটিসি’র উপকমিশনার মহিবুল ইসলাম খান বলেন, ‘পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগকারী ওই ব্যক্তিকে আমরা খুঁজছি। নাগরিকদের অনুরোধ করছি, তার বিষয়ে কারো কাছে কোনও তথ্য থাকলে ডিএমপিকে উল্লেখিত নম্বরে জানান।’

বুধবার দুপুরের দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এসময় বিএনপি’র নেতাকর্মীরা পুলিশের গাড়ি ভাঙচুরসহ আগুন ধরিয়ে দেয়। বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের দুটি গাড়িতে আগুন দেওয়ার দৃশ্য গণমাধ্যমকর্মীদের ক্যামেরা ধরা পড়ে। তাতে দেখা যায়, হেলমেট পরা কালো রঙের শার্ট গায়ে এক যুবক একটি চেয়ার দিয়ে গাড়ির উপরে উঠে ভাঙচুর চালাচ্ছে। কয়েকজন বাঁশের লাঠি দিয়ে আঘাত করছে গাড়িতে। এরপর ম্যাচ দিয়ে একজনকে আগুন ধরিয়ে দিতে দেখা যায়। এরপর গাড়িটি জ্বলে ওঠে। এই যুবককের বিষয় তথ্য দিতে নাগরিকদের অনুরোধ করেছে ডিএমপি।

এদিকে অগ্নিসংযোগের কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন সিটিটিসি প্রধান মনিরুল ইসলাম। তিনি বলেন, বিনা উসকানিতে ইস্যু তৈরি করার জন্য এটা করেছে ওরা। এ ঘটনায় মহানগর পুলিশের ‍মতিঝিল জোনের এডিসিসহ ১৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

আহত পুলিশ সদস্যদের শারীরিক অবস্থা দেখতে কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল, রাজারবাগে যান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এ সময় তিনি বলেন, যারা পুলিশ সদস্যদের হত্যা করতে চেয়েছিল, পুলিশের দুইটি গাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে ও একটি এপিসি আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে, তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই মামলা করা হবে। ভিডিও ফুটেজ দেখে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য, দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহের মধ্যেই বুধবার ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যানসহ দুটি গাড়ি জ্বালিয়ে দেয়া হয়। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নির্দিষ্ট দূরত্বে অবস্থান নিয়ে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ।

জ্বালিয়ে দেয়া পুলিশের পিকআপ ভ্যানটির নম্বর ২৩১১। পুলিশের মতিঝিল জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) গাড়িটি ব্যবহার করতেন বলে জানা গেছে।