প্রথম যৌন নির্যাতনের কাহিনি জানালেন কঙ্গনা

26

সবুজ সিলেট ডেস্ক : বলিউডে সমকালীন নামি অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম নাম কঙ্গনা রানাউত। তার অভিনয়শৈলী খুব সহজেই মুগ্ধতা ছড়ায় রুপালি পর্দায়। গতানুগতিক বাণিজ্যের সিনেমার চেয়ে খানিকটা ভিন্নধর্মী গল্পে নির্মিত ছবি নিয়ে আগ্রহী বেশি।

নারী প্রধান ছবির জন্য মুখিয়ে থাকেন তিনি। তাকে বেশ কয়েকটি নারী প্রধান ছবিতে দেখাও গেছে। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘মণিকর্নিকা’ নামের একটি ছবি। এরইমধ্যে ঝাঁসির রানি চরিত্রে লড়াকু কঙ্গনার উপস্থিতি চমকে দিয়েছে হিন্দি ছবির দর্শকদের।

এদিকে সম্প্রতি কঙ্গনা আলোচনায় এলেন মিটু কাণ্ডে মুখ খুলে। কঙ্গনা রানাওয়াতের প্রতিবাদী কণ্ঠ হিসেবে আলাদা পরিচিতি রয়েছে। নারীর স্বাধিকারে বিশ্বাসী এই অভিনেত্রী হায়দরাবাদে সাংবাদিকদের শোনালেন তার কিশোরী বয়সের সেই দুর্ভাগ্যজনক কাহিনি।

কঙ্গনা যখন ১৬ বছর বয়স, তখন তিনি প্রথম যৌন নিগ্রহের শিকার হয়েছিলেন। সেই নির্যাতনের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করেছিলেন তিনি। ‘মণিকর্নিকা’ ছবির প্রচারের ফাঁকে এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমার তখন ১৬ বছর বয়স, সে সময় আমি থানায় প্রথম যৌন নিগ্রহের অভিযোগ দায়ের করেছিলাম।’

তার মতে, সমাজে এমন অনেকে আছেন যারা প্রতিবাদী। তাই আমাদের উচিত তাদের নিরুৎসাহিত না করে পাশে দাঁড়ানো। যারা স্বনির্ভর হতে চান, তাদের পাশে দাঁড়ানো উচিত।’

‘মণিকর্ণিকা’ ছবিতে রানি লক্ষ্মীবাঈয়ের চরিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি এ ছবির অন্যতম নির্দেশকও তিনি। পরিচালক হিসেবে এটাই তার প্রথম কাজ। চলতি মাসের ২৫ তারিখ মুক্তি পাচ্ছে ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’।

সবুজ সিলেট/জেএ