ক্রীড়াঙ্গন শৃঙ্খলাবোধের সূতিকাগৃহ -জেলা ও দায়রা জজ

4

সিলেটের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ ড. গোলাম মর্তুজা মজুমদার বলেছেন, খেলাধুলা মানসিক আনন্দ প্রদান ছাড়া দৈহিক বৃদ্ধি এবং শারীরিক সুস্থতার অন্যতম উৎস। খেলাধুলার মাধ্যমে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার, সিনিয়র-জুনিয়রদের মধ্যে আন্তরিকতার সৃষ্টি হয়। তাই ক্রীড়াঙ্গনে আইনজীবীদের অংশগ্রহণ নিঃসন্দেহে এক উদারতা, শৃঙ্খলাবোধ ও মিলনমেলার ক্ষেত্র। বিশেষ করে ক্রীড়াঙ্গন হলো শৃঙ্খলাবোধের সূতিকাগৃহ। এই খেলাধুলা যেমন জীবন দেহ মন সুস্থ রাখে, তেমনি খেলাধুলার মাধ্যমে সমষ্টি চেতনার উন্মেষ ঘটে। টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটিকে ধন্যবাদ জানিয়ে এ ধরনের প্রতিযোগিতা অব্যাহত থাকবে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি আরো বলেন, খেলাধুলা থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে সকলে মিলেমিশে কাজ করতে হবে। কর্মক্ষেত্রে পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি দেশ ও জাতির উন্নয়ন এবং অগ্রগতিতে অবদান রাখতে হবে।
তিনি গতকাল শনিবার এমসি কলেজ মাঠে সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির উদ্যোগে এবং ল’ইয়ার্স ফুটবল ফ্যানস আয়োজিত আইনজীবী প্রীতি ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৯-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন।
জেলা আইনজীবী সমিতির ৫টি বারের আইনজীবীগণের সমন্বয়ে ৬টি দল নিয়ে সারা দিনব্যাপী এই ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বারের সিনিয়র ও জুনিয়র আইনজীবীদের নিয়ে টুর্নার্মেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলো হলো-১ নং বার হলের দুরন্ত একাদশ, ২নং বার হলের সুরমা সুপার ঈগল ও সোনার বাংলা ফুটবল টিম, ৩নং বার হলের টাইগার ইলেভেন, ৪নং বার হলের ফোর ইলেভেন সুপার স্টার এবং ৫নং বার হলের দূর্বার স্পোর্টিং ক্লাব।
সকাল সাড়ে ৮টায় উদ্বোধন হয়ে দিনব্যাপী টুর্নামেন্টের চূড়ান্ত পর্বের ফাইনাল শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কাার বিতরণ করা হয়।
সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ লালার সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান। উদ্বোধনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের উপস্থিত ছিলেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল কুদ্দুস, ১নং বার হলের দুরন্ত একাদশের টিম ম্যানেজার অ্যাডভোকেট অশোক পুরকায়স্থ, ২নং বার হলের সুরমা সুপার ঈগলের টিম ম্যানেজার অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান শাবু ও সোনার বাংলা ফুটবল টিমের ম্যানেজার অ্যাডভোকেট সরোয়ার আহমদ চৌধুরী আবদাল, ৩নং বার হলের টাইগার ইলেভেনের টিম ম্যানেজার অ্যাডভোকেট এ.টি.এম. ফয়েজ, ৪নং বার হলের ফোর ইলেভেন সুপার স্টারের টিম ম্যানেজার মো. নিজাম উদ্দিন এবং ৫নং বার হলের দূর্বার স্পোর্টিং ক্লাবের টিম ম্যানেজার অ্যাডভোকেট মো. মনির উদ্দিন, আয়োজক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিজাম উদ্দিন আহমদ, অ্যাডভোকেট এ.কে.এম. সামিউল আলম, অ্যাডভোকেট আলী মোস্তফা মিশকাতুন নুর, অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবীর বাবুল, অ্যাডভোকেট গোলাম রাজ্জাক চৌধুরী জুবের, অ্যাডভোকেট দিলীপ কুমার কর, অ্যাডভোকেট বিজয় কুমার দেব বুলু, অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খাঁন মানিক, অ্যাডভোকেট মাহফুজুর রহমান, অ্যাডভোকেট মো. এমদাদুল হক, অ্যাডভোকেট বদরুল আলম চৌধুরী, অ্যাডভোকেট মো. ফখরুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট রঞ্জিত চন্দ্র সরকার, অ্যাডভোকেট মো. মিছবাউর রহমান আলম, অ্যাডভোকেট মো. আজমল আলী, অ্যাডভোকেট বিজিত লাল তালুকদার, অ্যাডভোকেট মো. গিয়াস উদ্দিন, অ্যাডভোকেট মো. সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী। এছাড়া জেলা বারের বিভিন্ন পর্যায়ের আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।
টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় ৩নং বার হলের টাইগার ইলেভেনকে ২-০ গোলে হারিয়ে ৫ নং বার হলের দুর্বার একাদশ বিজয়ী হয়।
গতকাল শনিবার সকালে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টের প্রথম খেলায় দুরন্ত একাদশ মোকাবেলা করে সুরমা সুপার ঈগলের। এ খেলায় ১-০ গোলে সুরমা সুপার ঈগল জয়লাভ করে। দ্বিতীয় খেলায় সোনার বাংলা ফুটবল টিম মোকাবেলা করে দুর্বার স্পোর্টিং ক্লাবের। এই খেলায় দুর্বার ২-০ গোলে জয় পায়। অপর খেলায় ফোর ইলেভেন মোকাবেলা করে টাইগার ইলেভেনের। খেলাটি ২-২ গোলে ড্র হয়।
টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে দুর্বার স্পোর্টিং ক্লাব মোকাবেলা করে সুরমা স্পোর্টিং ক্লাবের। এতে দুর্বার স্পোর্টিং ১-০ গোলে জয় পায়। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে টাইগার ইলেভেন মোকাবেলা করে ফোর ইলেভেনের। এই খেলায় টাইগার ইলেভেন ১-০ শূন্য গোলে জয়লাভ করে। টুর্নামেন্টে ম্যান অব দ্যা টুর্নামেন্ট পুরস্কার পান অ্যাডভোকেট এসএম ফয়সল আহমদ। খেলায় রেফারির দায়িত্ব পালন করেন আক্কাস উদ্দিন আক্কাই, সহকারী বেফারির দায়িত্বে ছিলেন মো. গিয়াস উদ্দিন গিয়াস ও শামীম আহমদ।
টুর্নামেন্ট সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হওয়ায় জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ লালা ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল কুদ্দুস সকলকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। বিজ্ঞপ্তি