কাশ্মীর সীমান্তে ফের গোলাগুলি, দুই পাক সেনাসহ নিহত ৭

14

অনলাইন ডেস্ক:
পাকিস্তানে আটক ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দেয়ার পর কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর আবারো গোলাগুলি শুরু হয়েছে। পাকিস্তান ও ভারতীয় বাহিনীর মধ্যে শুক্রবার রাত থেকে শুরু হওয়া গোলা বিনিময় শনিবারও চলছে। এতে ৭ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। নিহতদের দুইজন পাকিস্তানের সেনা বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। আল-জাজিরা।

আল-জাজিরা জানায়, পাকিস্তানের ছোড়া মর্টার শেলে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে একই পরিবারের তিন জন মারা গেছে। অন্যদিকে ভারত বোমাবর্ষণ করে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের নাকিয়াল এলাকায়। সেখানে দুই বেসামরিক নাগরিক মারা যান।

পাকিস্তান সেনাবাহিনী এক বিৃবৃতিতে জানিয়েছে, ‘পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের নাকিয়াল এলাকা দখলকারী ভারতীয় বাহিনীর উদ্দেশ্যে গুলি ছোড়ার সময় দুই পাকিস্তানি সেনা নিহত হয়েছে।’

কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে হামলাকে কেন্দ্র করে ভারত পাকিস্তানের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই হামলার জবাব দিতে পাকিস্তানের সীমানা ভেদ করে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোটে হামলা চালায় ভারতীয় সেনাবাহিনী। ভারতের দাবি হামলায় অন্তত ৩০০ জঙ্গি নিহত হয়েছে। তবে ভারতের এমন দাবি প্রত্যাখান করে পাকিস্তান।

২৭ ফেব্রুয়ারি নিয়ন্ত্রনরেখা লঙ্ঘনের দায়ে দুইটি ভারতীয় যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে বলে দাবি করে পাকিস্তান। সেইসঙ্গে আটক করে এক ভারতীয় পাইলটকে। শুক্রবার সেই পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ফেরত দেয় পাকিস্তান।
গেল ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে গাড়ি বোমা হামলায় দেশটির সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) ৪৯ জন সেনা নিহত হয়। হামলার দায় স্বীকার করে পাকিস্তান ভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। জম্মু-কাশ্মীরে স্বাধীনতার পর এত বড় সন্ত্রাসবাদী হামলা এর আগে হয়নি।