ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলায় নিহত ব্যক্তিদের লাশ আজ থেকে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর শুরু

7

অনলাইন ডেস্ক:
রয়টার্সনিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলায় নিহত ব্যক্তিদের লাশ আজ রোববার থেকে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর শুরু হবে। নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছেন।

সিএনএন অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, ওয়েলিংটনে সংবাদ সম্মেলনে করেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানান, আজ স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় কিছু সংখ্যক মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। আগামী বুধবারের মধ্যে মরদেহ হস্তান্তর শেষ করা হবে।

 

প্রধানমন্ত্রী জানান, কাল সোমবার মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে দেশটির অস্ত্র আইনে পরিবর্তন আনাসহ জঙ্গি নজরদারির তালিকা এবং জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে। পরদিন মঙ্গলবার হতাহত হওয়া ব্যক্তিদের দেশটির পার্লামেন্ট স্মরণ করা হবে।

স্থানীয় সময় গত শুক্রবার বেলা দেড়টার দিকে ক্রাইস্টচার্চে আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের ওপর প্রথমে সন্ত্রাসী হামলা হয়। কিছু পরে লিনউড মসজিদে দ্বিতীয় হামলা হয়। দুটি মসজিদে হামলায় ৫০ জন নিহত হন। আহত প্রায় ৫০ জন।

আল নুর মসজিদে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে হামলার ঘটনাটি ফেসবুকে লাইভস্ট্রিম করেন হামলাকারী ব্রেনটন হ্যারিসন টারান্ট। ওই মসজিদে নামাজ আদায়ের জন্য যাচ্ছিলেন নিউজিল্যান্ড সফরে থাকা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। তাঁরা অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পান। আল নুর মসজিদে আনুমানিক ৩০০ এবং লিনউড মসজিদে শ খানেক মুসল্লি নামাজ আদায় করছিলেন বলে জানা গেছে।

নিউজিল্যান্ডের পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ বলেছেন, হামলায় নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হয়নি। তবে নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যদের ইতিমধ্যে অবহিত করা হয়েছে। মরদেহগুলো শনাক্তের কাজ দ্রুত করা হচ্ছে।

অনলাইনে এক বিবৃতিতে নিউজিল্যান্ড পুলিশ জানিয়েছে, ক্রাইস্টচার্চে হামলায় হতাহত হওয়া ব্যক্তিদের শনাক্ত করতে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ। নিহত ব্যক্তিদের নাম প্রকাশের আগে এ-সংক্রান্ত বিস্তারিত কাজ শেষ করা হবে।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ধর্মীয় রীতি মেনে যাতে দ্রুত দাফনের কাজ শেষ করা যায়, সে জন্য তাঁরা তৎপর রয়েছেন।