শেরপুরে ‘চলন্ত বাস থেকে ফেলে’ শিক্ষার্থীকে হত্যা!

58

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সিলেটের শেরপুরে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে ওয়াসিম আফনান নামে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (সিকৃবি)-এর এক শিক্ষার্থীকে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে।

ওয়াসিমের সহপাঠীদের অভিযোগ, বাসের চালকের দুই সহযোগি ওয়াসিমকে ধাক্কা দিয়ে বাস থেকে রাস্তায় ফেলে হত্যা করে।।

শনিবার (২৩ মার্চ) সন্ধ্যায় ঢাকা সিলেট মহাসড়কের শেরপুর নামক স্থানে এ ঘটনাটি ঘটে বলে জানান তার সহপাঠী নয়ন।

ছাত্র মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বলেন, ওয়াসিম আফনান নামে এক ছাত্রকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে আনার পর ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে কিভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হতে পারিনি।

নিহত ওয়াসিম সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র। তিনি হবিগঞ্জে নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের রুদ্র গ্রামের মো. আবু জাহেদ মাহবুব ও ডা. মীনা পারভিনের ছেলে।
ওসমানী হাসপাতাল থেকে সিকৃবির রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম সোয়েব সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ওয়াসিমসহ আরেকজন ছাত্র এই বাসে করে বাড়ি থেকে সিলেট আসছিলো। বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে দু’জনকেই বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় বাসটির চালকের দুই সহকারী। এরমধ্যে ওয়াসিমের উপর দিয়ে আরেকটি গাড়ি চলে যাওয়ায় ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।
তিনি বলেন, ওয়াসিমের মৃত্যুর খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করছে। পরিস্থিতি একটু শান্ত হওয়ার পর এ ব্যাপারে আইনী পদক্ষেপের উদ্যোগ নেওয়া হবে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ওয়াসিম সিলেটের আউশকান্দি থেকে সিলেটে আসার উদ্দেশ্য নিয়ে ময়মনসিংহ রোডের উদার পরিবহন নামের একটি বাসে উঠেন। সেখানে বাসের হেল্পার ও চালকের সাথে তার বাকবিতণ্ডা হয়। পরে সেই বাসের হেল্পার তাকে চলতি বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়।
এদিকে শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে।