জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কের বেহাল দশা ॥ যান চলাচলে অনুপযোগী

28

মো. আব্দুল হাই জগন্নাথপুর
জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কের জগন্নাথপুর উপজেলার কেউনবাড়ি বাজার পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশার ফলে যানচলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সড়ক সংস্কারের আশ্বাস দিলেও দীর্ঘ এক বছরেও সড়কটিতে পুন:সংস্কার কাজের উদ্যোগ না থাকায় চরম দূর্ভোগে পড়েছেন জনসাধারণ।
২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কের কেউন বাড়ি বাজার পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার সড়কের পুন:সংস্কার কাজ বাস্তবায়ন হয়। সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীদের পুন:সংস্কার কাজের সঠিকভাবে তদারকি না হওয়ায় এবং সংস্কার কাজের ঠিকাদার কর্তৃক অনিয়মের কারনে বছর যেতে না যেতেই আবারো সড়কের বিভিন্ন স্থানে খানা খন্দক ও গর্তের সৃষ্টি হয়েছে এমন অভিযোগ ভুক্তভোগী জনসাধারণের। চলতি বছরে বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই উপজেলা সদর থেকে হাসপাতাল মোড় পর্যন্ত সড়কটির বটেরতল ও হামজা কমিউনিটি সেন্টারের সামনে, ভবের বাজার থেকে কেউনবাড়ি বাজার পর্যন্ত বিশাল গর্তের পাশাপাশি অসংখ্য খানা খন্দকের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এসব গর্তগুলোতে মালবাহি ট্রাক, যাত্রীবাহি বাস সহসকল প্রকার যানবাহন আটকে গিয়ে বিকল হয়ে পড়ছে। এছাড়াও সিএনজি অটোরিকশা, টমটম, রিকশা, মটর সাইকেলসহ ছোট বড় সকল প্রকার যানবাহন এসব গর্তে পড়ে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। সড়কের ঐ স্থানগুলোতে বৃষ্টির পানি জমে থাকার কারণে যাতায়াতকৃত অধিকাংশ যানবাহনগুলো অসাবধান বশত: গর্তে পড়ে গিয়ে যানবাহনের ক্ষতির পাশাপাশি যাত্রীদেরও জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। সড়ক যোগাযোগের এমন নাজুক পরিস্থিতিতে জনসাধারণের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সড়ক যোগাযোগের নাজুক পরিস্থিতির কারনে উপজেলার অধিকাংশ নাগরিকরা তাদের প্রাইভেট গাড়িগুলো ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার আশংকায় বাসাবাড়ির গ্যারেজে তালাবদ্ধ রেখেছেন।
সড়কটির বর্তমান নাজুক পরিস্থিতির কারণে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর পুন:সংস্কারের জন্য প্রাক্কলন প্রস্তুুত করে অনুমোদনের জন্য প্রধান প্রকৌশল অধিদপ্তরে পাঠিয়েছেন। তবে সড়কটিতে আপাতত যানবাহন চলাচলের সুবিধার্থে খানা খন্দক ও গর্তগুলো ভরাটের জন্য ১০ লক্ষ টাকার প্রাক্কলন প্রস্তুুত হয়েছে। শীঘ্রই দরপত্র বিজ্ঞপ্তি আহবানের মাধ্যমে কাজ শুরু হওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন এলজিইডি কর্তৃপক্ষ।
এদিকে সড়কটি সংস্কারের কিছু দিন যেতে না যেতেই চলাচলে অনুপযোগী হওয়ায় সংশ্লিষ্ট বিভাগ সরকারি নিয়ম অনুযায়ী সড়কের পুন:সংস্কার কাজের পদক্ষেপ নিতে বিলম্ব হয়। যোগাযোগ ব্যবস্থার দূর্ভোগ থেকে রেহাই পেতে উপজেলাবাসী সড়কটি এলজিইডি বিভাগের পরিবর্তে সড়ক ও জনপথ বিভাগে স্থানান্তরের জন্য পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের কাছে দাবি তুলেন।
সূত্র জানায়, জনসাধারণের দাবির প্রেক্ষিতে পরিকল্পনামন্ত্রী জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কটি সড়ক ও জনপথ বিভাগে স্থানান্তরের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছেন। এ অনুযায়ী এলজিইডি সড়কটি সড়ক ও জনপথ বিভাগে স্থানান্তর করার জন্য কাজ চলছে। তবে এ কাজটি দ্রুত বাস্তবায়ন হবে বলে জানাগেছে।
এলজিইডির জগন্নাথপুর উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ার সড়কের সংস্কার কাজের বিষয়ে সবুজ সিলেটকে জানান, জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কের কেউন বাড়ি বাজার পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার অংশে পুন:সংস্কার কাজের জন্য প্রাক্কলন প্রস্তুুত করে ইতোমধ্যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বরাবরে পাঠানো হয়েছে। তবে সাময়িকভাবে সড়কটির খানাখন্দক ও গর্ত ভরাটের জন্য ১০লাখ টাকা বরাদ্দ হয়েছে। শীঘ্রই দরপত্র আহবানের মাধ্যমে ঠিকাদার নিযুক্ত করে কাজ শুরু করা হবে।