বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনে বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ

11

সবুজ সিলেট ডেস্ক
আগামী ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন, আমার গ্রাম আমার শহর প্রকল্প ও আর্থিক খাতে বেশকিছু সংস্কার নিয়ে থাকবে বিশেষ উদ্যোগ। এসব নিয়ে অর্থমন্ত্রণালয় শেষ মুহূর্তের কাজ করছে বলে জানা গেছে।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী নিয়ে আগামী ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে বিশেষ দিক নির্দেশনা থাকছে। ২০২০ সালের ১৭ মার্চ শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী। এরই মধ্যে সরকার ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত বছরব্যাপী ‘মুজিব বর্ষ’ ঘোষণা করেছে। আগামী ১৭ মার্চের আগে এটি শেষ বাজেট হওয়ায় এই বাজেটে বেশ কিছু নতুন উদ্যোগ নেওয়ার পাশাপাশি রাখা হবে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ। যাতে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী যথাযথভাবে পালন করা যায়।
আওয়ামী লীগের নির্বাচনি ইশতেহার অনুযায়ী ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ প্রকল্পে বিশেষ নজর দেওয়া হবে। প্রকল্পের আওতায় গ্রামে ইন্টারনেট, গ্যাস, বিদ্যুৎসহ নানা ধরনের নাগরিক সেবা পৌছে দেওয়ার জন্য আগামী বাজেটে বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দায়িত্ব থাকবে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি বিভিন্ন মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনে এর সাথে সম্পৃক্ত করা হবে।
এ ব্যাপারে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ২০২০ সালের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী। এই দিনটিতে যথাযথভাবে পালন করতে আগামী বাজেটে বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হবে। এছাড়া আগামী বাজেটে ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ নামে আরেকটি নতুন প্রকল্প নেয়া হচ্ছে। সেখানেও থাকবে নানা পদক্ষেপ। এদিকে, আগামী বাজেটের সম্ভাব্য আকার প্রথমে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কেটি টাকা প্রস্তাব করা হলেও শেষ পর্যন্ত তা কিছুটা বেড়ে ৫ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হতে পারে। অন্যদিকে চলতি অর্থবছরের মূল বাজেটের আকার হচ্ছে ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। সে হিসাবে নতুন বাজেটের আকার বাড়ছে ৬০ হাজার ৪২৭ কোটি টাকা।
অর্থমন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, আগামী বাজেট হবে সংস্কারমুখী। ব্যাংক পুঁজিবাজার, সঞ্চয়পত্র ও আর্থিক খাতে বিশেষ সংস্কার আনা হবে। অর্থবছরের শুরুতে বাস্তবায়ন করা হবে মূল্য সংযোজন কর ও সম্পুরক শুল্ক আইন। এছাড়াও আগামী বাজেটে কর ব্যবস্থা সহজীকরণ ও করের আওতা বাড়াতে পদক্ষেপ থাকছে। বাজেটে মানব সম্পদ উন্নয়ন, সামাজিক সুরক্ষা ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধিসহ জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় সক্ষমতা অর্জন, তথ্য প্রযুক্তি ও যোগাযোগ খাতের উন্নয়নে মেগা প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে।
উল্লেখ্য, আগামী ১৩ জুন জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হবে। এবারের বাজেটের সম্ভাব্য আকার ধরা হয়েছে ৫ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকা। এটি হচ্ছে বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেট। একইসঙ্গে নতুন অর্থমন্ত্রী হিসাবে আ হ ম মুস্তফা কামালের প্রথম বাজেট।