শাহপরানে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ সুরত আলীর বিরুদ্ধে চার্জশিট

34

স্টাফ রিপোর্টার
এসএমপির শাহপরান থানাধীন এলাকা ইসলামাবাদে ৫ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। শাহপরান (রহ.) থানার এসআই অঞ্জন সিংহ মামলার একমাত্র আসামি ইসলামাবাদ ছড়ারপারের মৃত শেখ আবদুল বারির ছেলে শেখ মো, সুরত আলীর (৭৭) বিরুদ্ধে এ চার্জশিট (নং-৭৮, তারিখ ২০/০৫/২০১৯) প্রদান করেন।
চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়, খাদিমনগর শাহপরান ইসলামাবাদ এলাকায় গত ৩১ মার্চ বিকেলে শিশুটি ঘরের পাশে অন্য শিশুদের সাথে খেলা করছিল। তখন সুরত আলী ওই শিশুকে তেঁতুল খাওয়ানোর কথা বলে ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ওই সময় শিশুর চিৎকারে খেলার সঙ্গীরাসহ প্রতিবেশীরা এগিয়ে গেলে বৃদ্ধ সুরত আলীকে উলঙ্গ অবস্থায় দেখতে পান। এ সময় সুরত আলী সাথে সাথে ওই ঘর থেকে বেরিয়ে যান। পরে শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়। এর পর শিশুর পরিবারের পক্ষে শাহপরান থানায় গত ৪ এপ্রিল একটি মামলা দায়ের করা হয়। (যার নং-০৪)।
মামলার চার্জশিটে তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহপরান (রহ.) থানার এসআই অঞ্জন সিংহ উল্লেখ করেন, ‘তদন্তকালে প্রাপ্ত তথ্য, সাক্ষ্যপ্রমাণে, ঘটনার পারিপার্শ্বিকতায় এবং ভিকটিমের বয়স ও ধর্ষণ পরীক্ষার ডাক্তারি মতামত পর্যালোচনায় অত্র মামলার ঘটনাটি এজাহারনামীয় আসামি শেখ মো. ছুরত আলী (৭৭), পিতা : মৃত শেখ মো. আবদুল বারি, মাতা মৃত ফুলবানু, সাং-ছড়ারপার, ইসলামাবাদ, খাদিমনগর, থানা-শাহপরান (রহ.), এসএমপি এর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী-২০০৩) এর ৯(১) ধারার অপরাধ প্রাথমিকভাবে সত্য বলিয়া প্রমাণিত হওয়ায় বর্ণিত আসামির বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে প্রকাশ্যে বিচারার্থে অত্র থানার অভিযোগপত্র নং ৭৮, তারিখ ২০/০৫/২০১৯ খ্রি, ধারা : নারী ও শিমু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী-২০০৩) এর ৯(১) দাখিল করিলাম।’