নাসায় আমন্ত্রণ পেলেন শাবিপ্রবির ৪ শিক্ষার্থী

15

সবুজ সিলেট ডেস্ক:
‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০১৮’ এ ‘বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন’ ক্যাটাগরিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়ে আমেরিকার এ সংস্থাটিতে আমন্ত্রণ পেয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) চার শিক্ষার্থী।

আমন্ত্রিত চার শিক্ষার্থী শাবিপ্রবির ‘টিম অলিক’ এর সদস্য। তারা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী এস এম রাফি আদনান, ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী কাজী মাইনুল ইসলাম ও আবু সাবিক মেহেদী ও একই বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সাব্বির হাসান।

মঙ্গলবার টিম অলিকের মেন্টর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী বলেন, গত ২৯ মে ও ১২ জুন নাসা কর্তৃপক্ষ দুটি পৃথক মেইলের মাধ্যমে শাবিপ্রবির টিম অলিককে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

টিম অলিককের চার শিক্ষার্থীকে আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে নাসায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়। তারা ২১, ২২ ও ২৩ জুলাই নাসার বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

এ বিষয়ে অলিকের টিম লিডার আবু সাবিক মাহদী বলেন, তারা নাসার তথ্য ব্যবহার করে ‘লুনার ভিআর’ তৈরি করে বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন বিভাগে বিশ্বে প্রথম স্থান অধিকার করে শাবিপ্রবির টিম অলিক।

তিনি বলেন, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে চাঁদের পরিবেশ ও তাপমাত্রা কেমন থাকে, চাঁদের রং পরিবর্তন হওয়া, চাঁদে যা আছে যেসব এর আগে কেউ কখনও দেখেনি-চাঁদ থেকে সূর্যের ছবি কেমন হয় ইত্যাদি বিষয়ে এ প্রজেক্ট ছিল। যা বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন বিভাগে প্রথম হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, নাসায় অবস্থানকালীন সময়ে আগামী ২১ জুলাই রকেট ফ্যালকন-৯ এর সিআরএস-১৮ মিশনের মহাকাশে উৎক্ষেপণ সরাসরি দেখতে পারবো। এরপর ২২ ও ২৩ জুলাই অন্যান্য অনুষ্ঠানে যোগদান করবে তার দল।

গত বছরের শেষের দিকে নাসা ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (নাসা) আয়োজিত নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০১৮ এ ‘বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন’ শাবিপ্রবির টিম অলিকসহ বিশ্বের ৭৯টি দেশ থেকে বাছাইয়ের পর ২ হাজার ৭২৯টি দলকে পেছনে ফেলে শীর্ষ চারে স্থান করে নেয় টিম অলিক।