কুলাউড়ায় রেলপথ পরিদর্শনে রেওলয়ের ব্যবস্থাপক

7

কুলাউড়া প্রতিনিধি
ঘনঘন ট্রেন দুর্ঘটনার প্রেক্ষিতে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় রেলপথ পরিদর্শন করেছেন রেলওয়ের (পুর্বাঞ্চলীয়) মহাব্যবস্থাপক মো. নাসির উদ্দিন। গতকাল সোমবার বিকেল ৪টার দিকে কুলাউড়ার স্টেশন সংলগ্ন জয়ন্তিকা ও কালনী ট্রেনের বগি লাইনচুত্য ঘটনাস্থল ও বরমচাল রেল সেতুতে উপবন ট্রেন দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে করেন তিনি।
সাম্প্রতিক সময়ে কুলাউড়ায় ঘন ঘন ট্রেন দুর্ঘটনার বিষয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলীয়র নতুন দায়িত্বে এসেছি। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট তদন্ত কমিটি ভালো বলতে পারবে। আমি শুধু সিলেট-আখাউড়ার রেলপথ পরিদর্শনে এসেছি। যেসব স্থানের রেলপথ ও সেতুতে ত্রুটি রয়েছে সেগুলো দ্রুত মেরামত করা হবে। রেল দুর্ঘটনায় আতংকিত হওয়ার কিছু নেই।’
তিনি আরো বলেন, ‘সিলেট আখাউড়া রেলপথটি নতুন করে ডুয়েলগেজ রেল লাইন নির্মাণ প্রকল্প ইতিমধ্যে পাস করা হয়েছে। তাছাড়া আগামী ছয় মাসের মধ্যে এ রুটের সবকটি আন্তঃনগর ট্রেনের বিদেশ থেকে আমদানীকৃত নতুন বগি সংযোজন করা হবে।’
জয়ন্তিকা ও কালনী ট্রেনের বগি লাইনচুত্য ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে কুলাউড়ার ঊর্ধ্বতন উপসহকারি প্রকৌশলী (কার্য) আশরাফুল আলম ও রেলপথ (সংকেত) এর দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির পাটোওয়ারির কাছে ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ জানতে চান। এসময় তিনি তাদের নির্দেশ দেন দ্রুত ক্ষতিগ্রস্ত রেল সিগন্যাল ও ত্রুটিযুক্ত রেলপথ মেরামতের জন্য।
এসময় তাঁর সাথে রেলওয়ে পুর্বাঞ্চলীয় প্রধান প্রকৌশলী মো. সুব্রত গীনিসহ রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে ঘনঘন রেল দুর্ঘটনার কারণ উদঘাটন ও দ্রুত রেলপথটি সংস্কারের দাবিতে সকাল ১১টার দিকে কুলাউড়া রেল স্টেশনের সম্মুখে কুলাউড়া ব্যবসায় কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে সর্বস্তরের মানুষের অংশগ্রহণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।