জমিয়তের সভায় বক্তারা প্রিয়ার বক্তব্য মুসলমান ও দেশের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ

8

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা হাফিজ নাজমুল হাসান বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহার অদ্ভুত বক্তব্য এদেশের মুসলমানদের মনে আঘাত এনেছে। দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ভঙ্গ করতে উস্কানি দিচ্ছে। সম্প্রতি বাংলাদেশ নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে ভুল তথ্য এবং বানোয়াট ও ডাহা মিথ্যা অভিযোগ করে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুণœ করেছেন প্রিয়া সাহা। তার বক্তব্য মুসলমান ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। বাংলাদেশের একজন সুনাগরিক হলে নিজ দেশ সম্পর্কে প্রিয়া সাহা এমন মন্তব্য করতে পারতেন না। আমরা তার এ বক্তব্য প্রত্যাখান করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে জানাচ্ছি।
তিনি বলেন, কেবল শান্তির ধর্ম ইসলামই সংখ্যালঘুদের সার্বিক নিরাপত্তা এবং সুখ-সমৃদ্ধিও নিশ্চিত করেছে।
মাওলানা নাজমুল হাসান আরো বলেন, প্রিয়া সাহা দেশের মুসলিম সমাজ ও সরকারের নামে নালিশ করে মূলত রাষ্ট্রদোহিতামূলক অপরাধ করেছে। সে একজন রাষ্ট্রদ্রোহী, রাষ্ট্রদ্রোহিতার দায়ে বাংলাদেশে তাকে অবিলম্বে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করতে হবে। নাজমূল হাসান বলেন, অনতিবিলম্বে রাষ্ট্রীয়ভাবে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করতে হবে এবং রাষ্ট্রদ্রোহী আসামি হিসেবে তাকে কঠিন শাস্তির আওতায় এনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। অন্যথায় রাষ্ট্র, ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে ভিন্ন রাষ্ট্রের কাছে এমন অবাস্তব মিথ্যা তথ্য দেয়ার প্রতিবাদে ধর্মপ্রাণ, দেশপ্রেমিক সচেতন তৌহিদি জনতাকে নিয়ে জমিয়ত সভাপতি আল্লামা আব্দুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি ও মহাসচিব মাওলানা নুর হোসাইন ক্বাসেমীর নেতৃত্বে কঠিন কর্মসূচি দিতে আমরা বাধ্য হব।
তিনি গতকাল সোমবার বিকেলে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সিলেট জেলা ও মহানগর জমিয়তের সদস্য সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন।
মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নুর আহমদ ক্বাসেমীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজ। অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন জেলা জমিয়তের সহসভাপতি শায়খুল হাদিস মুফতি মুজিবুর রহমান, শামসুদ্দিন বাণীগ্রামি, মাওলানা আব্দুল মতিন নাদিয়া, মাওলানা আসরারুল হক, মহানগর সিনিয়র সহসভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান সিদ্দিকী, সহসভাপতি মাওলানা খায়রুল হোসেন, মাওলানা আব্দুল আজিজ, মাওলানা মুজির উদ্দিন ক্বাসেমী, জেলার যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মালিক ক্বাসেমী, মাওলানা মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, মাওলানা ফরিদ উদ্দিন কয়েছ, মাওলানা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ সালিম ক্বাসেমী, জেলা প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, হাফিজ মাহমুদুল হাসান, মাওলানা শফিউল আলম, মাওলানা রশিদ আহমদ, মাওলানা খলিলুর রহমান, মাওলানা শিব্বির আহমদ বিশ্বনাথী, মাওলানা সাইফুল আলম, হাফিজ মাওলানা আব্দুস সামাদ, মাওলানা আজির উদ্দিন, মাওলানা আব্দুস সালাম, কাজী মাওলানা আমিন উদ্দিন, মাওলানা ফরিদ উদ্দিন, মুফতি এবাদুর রহমান, মাওলানা আব্দুল খালিক, মাওলানা মাহফুজ আহমদ, মাওলানা ফারুক আহমদ। বিজ্ঞপ্তি