বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল, নিউইয়র্ক এ যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যে জাতীয় শোক দিবস পালন

12
কামরুজ্জামান (হেলাল) যুক্তরাষ্ট্র:
বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল, নিউইয়র্কে গতকাল সন্ধ্যা ৮:০০ ঘটিকায় যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যে জাতীয় শোক দিবস এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে দিবসের দ্বিতীয় কর্মসূচী হিসেবে বিশেষ দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কনসাল জেনারেল মিজ্ সাদিয়া ফয়জুননেসা কর্তৃক জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণের মাধ্যমে জাতীয় শোক দিবসের প্রথম পর্বের কর্মসূচী শুরু করা হয় সকাল ১০:০০ ঘটিকায়। দ্বিতীয় পর্বের শুরুতেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্ণাঢ্য জীবনের উপর নির্মিত একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। পরে, জাতির পিতা, তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। শোক দিবস উপলক্ষ্যে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রেরিত বাণী পাঠ করা হয়। আলোচনা সভায় বক্তারা জাতির পিতার বর্ণাঢ্য জীবন ও অর্জন সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তারা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নের্তৃত্বে সমবেতভাবে কাজ করে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহবান জানান। আলোচনা পর্বে অন্যান্যদের মধ্যে জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মান্যবর জনাব মাসুদ বিন মোমেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বক্তব্য রাখেন। শোক দিবস উপলক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত কুইন্স এর এ্যালমহার্স হাসপাতালে স্বেচ্ছায় যে রক্তদান কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়েছিল, সেটিকে স্বাগত জানিয়ে কনস্যুলেট জেনারেল এবং জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন রক্তদাতাদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করে। অনুষ্ঠানে স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যবৃন্দ, সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিগণ, জাতিসংঘে স্থায়ী মিশন এবং কনস্যুলেট জেনারেল এর কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং পরিবারের অন্যান্য শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে ও দেশের অব্যাহত সমৃদ্ধির জন্য বিশেষ দোয়া পরিচালনা করা হয়।

Seen by Md Kamruzzaman at 10:19 AM