সুনামগঞ্জে দু’শতাধিক প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ

7

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষ্যে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের আওতায় সুনামগঞ্জের ১১টি উপজেলার দুই শতাধিক প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ দুআ ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বোরবার বিকেল ৪টায় মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের উদ্যোগে শহরের শহিদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে এ হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে ও অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বিরোধী দলীয় হুইপ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান, সুবিমল চক্রবর্তী চন্দন, আইনুল ইসলাম বাবলু, তানজিল আহমদ, মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের সরকারি প্রকল্প পরিচালক রবীন্দ্র আচার্য্য।
সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বাংলাদেশে কোনো মানুষ না খেয়ে মরবে না। এজন্য প্রতিটি মানুষের জন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থান ও আবাসনের ব্যবস্থা করছে। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের কোনো বোঝা নয়, তাদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে পারলে তারাও উচ্চশিক্ষা লাভের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। তাই তাদেরকে করুণার চোখে না দেখে আসুন সবাই মিলে তাদের কল্যাণে পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান। পরে অতিথিরা প্রতিবন্ধদের মাঝে হুইল চেয়ার তুলে দেন।

সুনামগঞ্জে দু’শতাধিক প্রতিবন্ধীর
মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষ্যে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের আওতায় সুনামগঞ্জের ১১টি উপজেলার দুই শতাধিক প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ দুআ ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বোরবার বিকেল ৪টায় মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের উদ্যোগে শহরের শহিদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে এ হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে ও অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বিরোধী দলীয় হুইপ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান, সুবিমল চক্রবর্তী চন্দন, আইনুল ইসলাম বাবলু, তানজিল আহমদ, মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের সরকারি প্রকল্প পরিচালক রবীন্দ্র আচার্য্য।
সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বাংলাদেশে কোনো মানুষ না খেয়ে মরবে না। এজন্য প্রতিটি মানুষের জন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থান ও আবাসনের ব্যবস্থা করছে। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের কোনো বোঝা নয়, তাদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে পারলে তারাও উচ্চশিক্ষা লাভের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। তাই তাদেরকে করুণার চোখে না দেখে আসুন সবাই মিলে তাদের কল্যাণে পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান। পরে অতিথিরা প্রতিবন্ধদের মাঝে হুইল চেয়ার তুলে দেন।