নোবেলের কড়া সমালোচনা পরিকল্পনামন্ত্রীর

11

সবুজ সিলেট ডেস্ক
ভারতের জি বাংলার গানবিষয়ক রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা’তে জনপ্রিয়তা অর্জন করা বাংলাদেশের সংগীতশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেলের জাতীয় সংগীত নিয়ে মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

তিনি বলেছেন, ‘আমাদের ইতিহাস নিয়ে, পরিচয় নিয়ে নাড়াচাড়া করার জ্ঞান, বুদ্ধি-বিদ্যা তোমার মোটেও নেই।’
গতকাল শুক্রবার পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ মিলনায়তনে শোক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক আলোচনাসভায় এ মন্তব্য করেন পরিকল্পনামন্ত্রী।
তিনি বলেন, ইউটিউবে নোংরা, মিথ্যা, অর্ধসত্য কথা ছড়ানো হচ্ছে। এমনকি দেশের বাইরে থেকে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত, পতাকা, আমাদের দেশ সম্পর্কে মূর্খের মতো মন্তব্য করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত, পতাকা, আমাদের দেশ সম্পর্কে মূর্খের মতো মন্তব্য করেছে এক ছোকরা। তার নাম নোবেল। আমার খুব স্নেহ ছিল তার প্রতি। বাচ্চা ছেলে, ভালো গান গাইছে, সুন্দর লাগে। সে কী বলল, যে আমাদের জাতীয় সংগীত সঠিক নয়! আরও ভালো জাতীয় সংগীত তার কাছে লাগে!’
তিনি বলেন, ‘এভাবে জাতি সম্পর্কে মন্তব্য করা তোমার মতো বাচ্চা ছোকরা ছেলের উচিত নয়। তুমি মোটামুটি পরিচয় অর্জন করেছ। এটাকে আরও বাড়িয়ে নিয়ে যাও। আমরা তোমাকে আশীর্বাদ করি, দুআ করি। কিন্তু আমাদের ইতিহাস নিয়ে, পরিচয় নিয়ে নাড়াচাড়া করার জ্ঞান, বুদ্ধি-বিদ্যা তোমার মোটেও নেই।’

বঙ্গবন্ধুর অবদান তুলে ধরে এম এ মান্নান বলেন, ‘এক জীবনে বঙ্গবন্ধুর অবদান বলে শেষ করা যাবে না। তার ঋণ আমরা কোনোদিন শোধ করতে পারব না। বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীন দেশ দিয়েছেন। তার সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে।’
সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের অধ্যাপক আবুল হোসেন, সংগীতশিল্পী রফিকুল আলমসহ অনেকে এতে অংশ নেন।