সিলেট-ভোলাগঞ্জ সড়কে ধর্মঘট : জনদুর্ভোগ চরমে

4

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি
বিআরটিসির বাস চলাচল বন্ধের দাবিতে সিলেট-ভোলাগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মহাসড়কে ধর্মঘটে নেমেছে সিএনজি অটোরিকশা চালকরা। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকে যাত্রীরা চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।
গত সোমবার সিলেট-গোয়াইনঘাট-কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ সড়কে বিআরটিসি বাস চলাচল বন্ধের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক দেয় সিলেট-গোয়াইনঘাট-কোম্পানীগঞ্জ-হাদারপাড় বাস মিনিবাস মালিক সমিতি। তাদের ডাকে সোমবার সকাল ৬টা থেকে ওই সড়কগুলোতে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তবে সোমবার সিএনজি অটোরিকশা চলাচল করায় যাত্রীদের দুর্ভোগ ততোটা বেশি ছিল না। কিন্তু একই দাবিতে ওই সড়কগুলোতে গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে সিএনজি অটোরিকশা মালিক-শ্রমিকরাও ধর্মঘটে নামেন। ফলে সকাল থেকে যাত্রীরা সকল স্ট্যান্ডে গিয়ে বাস ও সিএনজি অটোরিকশা না পেয়ে মারাত্মক দুর্ভোগে পড়েন। পরিবহন না পেয়ে অনেক যাত্রী বাসাবাড়িতে ফিরে যেতে দেখা গেছেন।
স্থানীয় কোম্পানীগঞ্জের বাসিন্দা যুবলীগ নেতা রাসেল আহমদ বলেন, বিআরটিসি বাস বন্ধ করার দাবি অযৌক্তিক। অটোরিকশা ও বাস শ্রমিক ও মালিকেরা তাদের নিজস্ব স্বার্থ হাসিলের জন্য ধর্মঘট ডেকে আমাদেরকে দুর্ভোগে ফেলেছে। পাথর ব্যবসায়ী মোর্শেদ আলম জানান, প্রশাসনের উচিত শ্রমিকদের সাথে আলোচনা করে ধর্মঘট বাতিল করে সমঝোতার ভিত্তিতে জনসাধারণের স্বার্থে বিআরটিসি বাস চালু থাকুক এবং আরো কিছু বিআরটিসি বাস বৃদ্ধি করা হোক।
এ ব্যাপারে আম্বরখানা, সালুটিকর ও কোম্পানীগঞ্জ সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আবুল হোসেন জানান, আমাদের ধর্মঘট দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত চলবে।