অব্যাহত অনশনে রাজশাহী জুট মিলের ৮ শ্রমিক হাসপাতালে

5

জাতীয় মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ১১ দফা দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিনের মতো রাজশাহী জুট মিলে আমরণ অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন শ্রমিকেরা। এতে অসুস্থ হয়ে সকাল থেকে বেলা সাড়ে ১১টার মধ্যে আটজন শ্রমিক রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ব্যক্তিরা হলেন মিলের মেডিকেল সহকারী বদিউজ্জামান (৫৫), সিবিএর সাবেক সভাপতি ও মিলের সাবেক সার্জেন্ট মহসিন কবীর (৬৫), তাঁতি আসিয়া বেগম (৪২), জয়নাল (৫০) ও মনসুর আলী (৫০), বিদ্যুৎ বিভাগের মো. আসলাম (৪৫), আবদুল গফুর (৪৭) ও মোজ্জামেল (৪৫)। এ ছাড়া আরও ২৫ জন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের মিলের মেডিকেলে সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় বলে জানান ওই মেডিকেলের কর্মী আয়নাল হক।

গত নভেম্বর থেকে শ্রমিক সমাবেশ, প্রতীকী সমাবেশ, অনশন কর্মসূচি এবং পরে ২৪ ঘণ্টা উৎপাদন বন্ধ রেখে ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নে আন্দোলনে নেমেছেন শ্রমিকেরা। গত মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটা থেকে রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালী এলাকার রাষ্ট্রায়ত্ত এই পাটকলের সামনে কাঁথা-বালিশ নিয়ে আমরণ অনশন শুরু করেন প্রায় হাজারখানেক শ্রমিক।

আজ দুপুর ১২টা পর্যন্ত কোনো ধরনের আশ্বাস পাননি জানিয়ে রাজশাহী জুট মিলসের সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জিল্লুর রহমান বলেন, ‘আমরা শরীরের রক্ত দিয়ে হলেও দাবি আদায় করে ছাড়ব। অনেক শ্রমিক অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবুও আমরা দাবি আদায় না করে এখান থেকে যাব না।’

এ দিকে দুপুর ১২টার দিকে পাটকলের সামনে শ্রমিকদের এই আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন রাজশাহী জেলা ও মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা।