ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভিসা প্রত্যাখ্যান যুক্তরাষ্ট্রের

14

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক:
জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে যোগ দিতে আগামী বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্ক যেতে চেয়েছিলেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ। তবে তার ভিসা প্রত্যাখ্যান করেছে যুক্তরাষ্ট্র। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দুই দেশের উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আগামী বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সনদ সংক্রান্ত নিরাপত্তা বৈঠকে যোগ দিতে চেয়েছিলেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তেহরান-ওয়াশিংটনের মধ্যে সাম্প্রতিক উত্তেজনা শুরুর আগেই ওই বৈঠক এবং জারিফের সফরের পরিকল্পনা ঘোষণা করা হয়। তবে এখন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভিসা প্রত্যাখ্যান নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

১৯৪৭ সালের জাতিসংঘের ‘সদর দফতর চুক্তি’ অনুযায়ী বিদেশি কূটনীতিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে সাধারণ ভিসার দরকার পড়ে। ওয়াশিংটন বলছে, নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ এবং বৈদেশিক নীতির’ কারণে ভিসা প্রত্যাখ্যান করতে পারে তারা।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানি দূতাবাস পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফের ভিসা প্রত্যাখ্যান সংক্রান্ত খবর সংবাদমাধ্যমে দেখার কথা জানিয়েছে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র বা জাতিসংঘ থেকে তাদের এবিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।

প্রসঙ্গত, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে গত ৩ জানুয়ারি ভোরে বাগদাদ বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের প্রভাবশালী জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনার চরম প্রতিশোধ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইরান। এদিকে বাগদাদে হামলার ঘটনায় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ও সাধারণ পরিষদের কাছে পাঠানো আলাদা চিঠি পাঠিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছে ইরাকের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।