তাহিরপুরে বসতঘর ভাঙচুর

4

তাহিরপুর প্রতিনিধি
তাহিরপুরে প্রতিপক্ষের ছেলের সাথে মেয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র বসতঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘেেটছে। গতকাল শনিবার দুপুর ১২টায় উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের নোয়ানগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। তাহিরপুর থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নোয়ানগর গ্রামে আলী আজগর ও জয়নাল আবেদীনের পক্ষদ্বয়ের মধ্যে দীর্ঘদিনের শত্রæতার রেষ ধরে প্রতিবছরই ঝগড়াঝাটি হয়ে থাকে। ২০১৮ সালে আলী আজগরসহ তার স্বজনরা মিলে ৫০ পরিবার গ্রামছাড়া ছিল। পরে ইউএনও ও থানা পুলিশের সহযোগীতায় তারা একদিনপর গ্রামে ফিরে আসে। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে ঝগড়াঝাটি করে থাকে।সম্প্রতি গত ১২ ফেব্রæয়ারি নোয়ানগর গ্রামের সম্মূখে তাহিরপুর থানার ওসিসহ এলাকার বিশিষ্টজনদের উপস্থিতিতে এক কমিউনিটি পুলিশিং সভা অনুষ্টিত হয়। সভায় উভয় পক্ষকে সালিশের মাধ্যমে সমঝোতা করে দেয়া হয়। এরপর দু’পক্ষের মধ্যে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে দেখা গিয়াছিল।
গত শুক্রবার দিবাগত রাতে আজগর আলীর মেয়ে প্রতিপক্ষ আব্দুল করিমের ছেলের সাথে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা দেখা গিয়েছিল।
আলী আজগর পক্ষের লোকজন সকাল থেকেই গ্রামের আশপাশ থেকে প্রকাশ্যে ঘোষনা দেয় শনিবার দুপুর ১২টার মধ্যে মেয়ে ফিরিয়ে না দিলে ছেলের পক্ষের বাড়িঘরে হামলা চালানো হবে।
এমতাবস্থা দুপুর ১২ঘটিকার পরই আজগর আলীর পক্ষ থেকে চালানো হয়েছে প্রতিপক্ষ নোয়ানগর গ্রামের আব্দুল করিম,খসরু মিয়া ও জিল্লুর রহমানের বাড়িঘরে অতর্কিত হামলা। তবে একতরফা হামলায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। হামলায় শুধু তাদের বাড়িঘর ভাঙচুর হয়েছে। সংবাদ পেয়ে তাহিরপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।
তাহিরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আতিকুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে তিনি রয়েছেন। পরিস্থিতি এখন স্বাভাভিক রয়েছে।