চাঁদাবাজি করতে গিয়ে ঢাবির দুই ছাত্র হাতেনাতে ধরা, কারাগারে প্রেরণ

6

চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেপ্তার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দুই ছাত্রকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত এই আদেশ দেন।

দুই আসামি হলেন আল আমিন ও জুবায়ের আহমেদ। তাঁরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের ছাত্র। ছাত্রলীগের বিভিন্ন কর্মসূচিতে এদের দেখা গেলেও সংগঠনে তাদের কোনো পদ-পদবি নেই।

এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান।

শাহবাগ থানার ওসি বলেন, মামলার এজাহারে বাদীপক্ষ অভিযোগ করেছেন যে বালুবাহী একটি ট্রাক শুক্রবার দিবাগত রাতে হাইকোর্ট মাজার এলাকায় আসার পর চাকা ফেটে যায়। তখন আসামি আল আমিন ও জুবায়ের আহমেদ ট্রাকের চালকের কাছে চাঁদা দাবি করেন। টাকা না দেওয়ায় আসামিরা মারধরও করেন। একপর্যায়ে আসামিরা ভুক্তভোগীদের কাছে থাকা মোবাইল ছিনিয়ে নেন। মোবাইলে থাকা রকেট থেকে ১৯৫০ টাকা ট্রান্সফার করে নেন। টহল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আসামিদের আটক করে।

এ ঘটনায় ট্রাকের তত্ত্বাবধায়ক সোহেল রানা বাদী হয়ে দুজনকে আসামি করে শাহবাগ থানায় মামলা করেন। পরে গ্রেপ্তার দুই আসামিকে আজ ঢাকার সিএমএম আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

প্রক্টর গোলাম রব্বানী বলেন, তাঁরা অভিযোগটির বিষয়ে জানতে পেরেছেন। শাহবাগ থানাকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। দুই ছাত্রের অপরাধ প্রমাণিত হলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে।