ইতালিতে মৃত্যুর মিছিল ঠেকাতে একদিনের বেতন

41

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের রোষানলে সবচেয়ে বেশি পড়েছে ইতালি।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে, সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেছে ১৩ হাজার ৪৮ জন। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ইতালিতে, ৪ হাজার ৮২৫ জন। আল জাজিরা জানিয়েছে, ইতালিতে এক দিনে মারা যাওয়ার নতুন রেকর্ড হয়েছে গতকাল, ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭৯৩ জন। কীভাবে এই মৃত্যুর মিছিল আটকানো যাবে, ইতালি যেন বুঝতেই পারছে না। এর মধ্যেই আশার একবিন্দু আলো হয়ে এলেন রাজধানী রোমের সবচেয়ে বড় ক্লাব, এএস রোমার খেলোয়াড়েরা। করোনার চিকিৎসার জন্য তারা প্রত্যেকে এক দিনের বেতন দান করে দিয়েছেন একটি হাসপাতালকে। ফ্রানসেসকো টট্টি আর ড্যানিয়েল ডি রসিদের সাবেক ক্লাব এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

শুধু তাই নয়, ক্লাবের পক্ষ থেকে তিনটি ইনটেনসিভ কেয়ার ভেন্টিলেটর ও আটটি নতুন ইনটেনসিভ কেয়ার বেড কেনার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

রোমের লাজারো স্পালাঞ্জানি হাসপাতাল করোনা চিকিৎসার ক্ষেত্রে এ মুহূর্তে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। প্রতিনিয়ত তাদের প্রয়োজন হচ্ছে নতুন নতুন যন্ত্রপাতির। রোমার খেলোয়াড়েরা অর্থ দিয়ে এই হাসপাতালকেই সহায়তা করছেন।

গত সপ্তাহ থেকে রোমা করোনাভাইরাস প্রতিরোধের জন্য অর্থ সংগ্রহের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ক্লাব সভাপতি জেমস পালোত্তা নিজে দিয়েছেন ৮৯ হাজার ইউরোর মতো। এডিন জেকো, আলেক্সান্দার কোলারভ, নিকোলো জানিওলো ও লরেঞ্জো পেলেগ্রিনির মতো খেলোয়াড়েরা নিজেদের একদিনের বেতন দান করে আরও দুই লাখ ইউরোর মতো জমা করেছেন। ফলে সব মিলিয়ে রোমা তুলতে পেরেছে ৪ লাখ ৬০ হাজার ইউরোর মতো অর্থ। তাদের লক্ষ্য ছিল, পাঁচ লাখ ইউরো সংগ্রহ করা। লক্ষ্যপূরণের দিকে বেশ ভালোভাবেই এগোচ্ছে রোমা।

কিছুদিন আগে আরেক ইতালিয়ান ক্লাব আতালান্তা চ্যাম্পিয়নস লিগে ভ্যালেন্সিয়া ম্যাচ থেকে প্রাপ্ত অর্থ এভাবেই একটা হাসপাতালে দান করে দেয়। অন্যান্য দেশের ক্লাবগুলোও বাদ নেই। এই যেমন ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার শহরে দুই ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও ম্যানচেস্টার সিটি গত কাল অনুদান হিসেবে এক লাখ ইউরো দান করেছে।