সুশান্তকে নিয়ে নোংরা রাজনীতি বন্ধ করুন

9

কঙ্গনা রনৌত, বিবেক ওবেরয়, রবিনা ট্যান্ডনের পর বলিউডকে এক হাত নিলেন সাইফ আলী খান। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তাঁর প্রতি বলিউডের উথলে পড়া ভালোবাসা অবাক করেছে এই নবাবপুত্রকে।

৪৯ বছর বয়সী সাইফ আলী খান সুশান্তের সর্বশেষ অভিনীত ছবি ‘দিল বেচারা’তে অভিনয় করেছেন। কিছু তারকাদের বিরুদ্ধে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করে এই ‘স্যাকরেড গেমস’খ্যাত অভিনেতা বলেছেন, লোক দেখানো ভালোবাসার কোনো প্রয়োজন নেই। তার বদলে তিনি এক দিনের জন্য মৌনব্রত রাখার কথা বলেছেন।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সাইফ বলেছেন, সুশান্তের মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক। তবে তিনি মনে করেন, এই ঘটনাটিকে ঘিরে অনেকে নাটক করছে, নোংরা রাজনীতি করছে। এই প্রসঙ্গে সাইফ বলেন, ‘বলিউডের কিছু মানুষ ওর মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে মন্তব্য করেছে। আমার মনে হয় এই মানুষগুলো কোনো না কোনোভাবে এই মৃত্যু থেকে নিজেদের ফায়দা তুলছে। রীতিমতো নোংরা রাজনীতি করা হচ্ছে এই ঘটনাটি ঘিরে। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর মানুষ সব সময় কিছু না কিছু বলে যাচ্ছে। আর এটা খুবই লজ্জাজনক।’

সুশান্তের এই হাসিমুখ এখন কেবলই স্মৃতি। ছবি: ইনস্টাগ্রামসুশান্তের এই হাসিমুখ এখন কেবলই স্মৃতি। ছবি: ইনস্টাগ্রামতিনি আরও বলেছেন, ‘আমি সুশান্তকে অন্তর থেকে শ্রদ্ধা করি। ওর মৃত্যুতে এক দিনের জন্য মৌনব্রত করা প্রয়োজন। আমরা দুর্গন্ধ ছড়ানোর চেয়ে নিজেদের মুখ বন্ধ রাখি। সুশান্তের প্রতি হঠাৎ ভালোবাসার বর্ষণের থেকে এটা অনেক ভালো। আজ যারা সুশান্তের প্রতি অগাধ প্রেম দেখাচ্ছে তারা মোটেও সুশান্তকে ভাবেনি। সুশান্ত তাদের চিন্তায়ই ছিল না। এই ইন্ডাস্ট্রিতে এ রকম প্রচুর মানুষ আছে। এদের শুধু নিজেদের স্বার্থ ছাড়া কারোর কোনো বিষয়ে মাথাব্যথা নেই।’

সাইফের কথায়, বলিউড ইন্ডাস্ট্রি প্রতিযোগিতায় বিশ্বাসী। তিনি বলেন, আজ অনেকে দেখাচ্ছে যে তারা সুশান্তকে নিয়ে খুবই চিন্তায় ছিল। আর এসব লোক দেখানো। প্রেমের নাটক করা মানে ওকে অপমান করা। ওর আত্মাকে অসম্মান করা।