বিশ্বনাথে কৃষক-কৃষাণীর মধ্যে অর্থ-বীজ বিতরন

8

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি::
‘মুজিববর্ষের অঙ্গিকার, নিরাপদ সবজি হবে উপহার’ স্লোগানকে সামনে রেখে সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলার ২৫৬ জন কৃষক-কৃষাণীর হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে জনপ্রতি নগদ ১ হাজার ৯৩৫ টাকা ও ১৪ প্রজাতির সবজির বীজ। মহামারী করোনা মোকাবেলায় নিজেদের উৎপাদিত সবজি দিয়ে যাতে কৃষক-কৃষনাণীরা নিজেদের পরিবারের পুষ্টির চাহিদা পূরণ করতে পারেন সেলক্ষ্যেই এগুলো বিতরণ করছেন সরকার।

সোমবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে নগদ অর্থ ও বীজ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও পৌর প্রশাসক মোঃ কামরুজ্জামান। ২০১৯-২০ অর্থ বছরের খরিপ-১/২০২০-২১ মৌসুমে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচীর আওতায় পারিবারিক সবজি এবং পুষ্টি বাগান স্থাপনের লক্ষ্যে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় এগুলো বিতরণ করা হয়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রমজান আলীর সভাপতিত্বে কৃষক-কৃষাণীদের মধ্যে নগদ অর্থ ও বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা শাকিল খন্দকার, বিশ্বনাথ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রনঞ্জয় বৈদ্য অপু, সাংবাদিক কামাল মুন্না প্রমুখ। সবজি উৎপাদনে উপজেলাবাসীকে উৎসাহী ও আগ্রহী করতেই সরকার কৃষক-কৃষাণীদের মধ্যে নগদ অর্থ ও বিভিন্ন প্রজাতির সবজি বীজ বিতরণ করার উদ্যোগ নিয়েছেন বলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার প্রত্যেক ইউনিয়নে ৩২ জন করে ৮টি ইউনিয়নে মোট ২৫৬ জন কৃষক-কৃষাণীকে জনপ্রতি পুঁইশাক, করলা, লালশাক, মরিচ, চাল কুমড়া, বড়বটি, বেগুন, কলমীসহ ১৪ প্রকার সবজির বীজ এবং সার ক্রয়, রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচ্চচর্যা বাবদ ১ হাজার ৯৩৫ টাকা করে প্রদান করা হয়।

আর কম জমিতে কিভাবে অধিক পরিমাণে সবজি উৎপাদন করা যায় তা উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা মাঠে গিয়ে নিশ্চিত করবেন। সঠিকভাবে উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চালে সবজি চাষাবাদ করলে সবজি উৎপাদন বাড়বে এবং মানুষের পুষ্টি চাহিদা পূরণ হবে।