জগন্নাথপুরে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি : অর্ধশতাধিক গ্রামের মানুষ পানিবন্ধি

6

মো: আব্দুল হাই ,জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::
টানা বৃষ্টিপাত আর পাহাড়ী ঢলে জগন্নাথপুর উপজেলার নিম্নাঞ্চল সহ পুরো উপজেলার অর্ধশতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বন্যায় ওইসব গ্রামের লোকজন পানিবন্ধি হয়ে পড়ায় চরম দূর্ভোগে রয়েছেন। গত ১ সপ্তাহ ধরে অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে উপজেলার পৌর শহর সহ কলকলিয়া ,চিলাউড়া হলদিপুর, রাণীগঞ্জ ও পাইলগাঁও ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রাম এবং পাড়া মহল্লার ঘর বাড়ি ও সড়কপথ বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় এসব এলাকার শ্রমজীবী অসহায় দরিদ্র পরিবার গুলো চরম দূর্ভোগে পড়েছেন। এছাড়াও পুরো উপজেলার অধিকাংশ গ্রাম এবং সড়কপথ জলমগ্ন থাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থার বিপর্যয়ের পাশাপাশি লোকজন পানিবন্ধি রয়েছেন।

এছাড়াও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর বসতঘরে পানি প্রবেশ করায় হাঁস, মোরগ, গরু, ছাগল ও ধান নিয়ে পড়ছেন মহা বিপাকে। কলকলিয়া ইউনিয়নের কামারখাল , কান্দারগাঁও , জগদীশপুর ,শ্রীধরপাশা এবং চিলিাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের স্বজনশ্রী , ইসমাইলচক, বাউধরণ , ভুরাখালি , বেতাউকা, দাসনোয়াগাঁও, গোপরাপুর, সালদিঘা গ্রাম সহ পৌর শহরের জগন্নাথপুর , বাড়ি জগন্নাথপুর, বাদাউড়া, শেরপুর সহ অর্ধশতাধিক গ্রাম ও পাড়া মহল্লার মানুষ পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

এসব এলাকার গ্রামীন সড়ক ,সেতু, কার্লভাট ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে উপজেলা সদরের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র খোলা রাখা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম জানান, বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। কুশিয়ারা ও নলজুর নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে । ১টি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নে বন্যায় সহস্রাধিক ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে।