ইরানে বিয়ের অনুষ্ঠানে নিষেধাজ্ঞা

14

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
নতুন করে আবারও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ইরানে বিয়েসহ সব ধরনের অনুষ্ঠান এবং জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে। তবে দেশটির অর্থনৈতিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এখনও চালু আছে।

টেলিভিশনে দেওয়া এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানে নতুন করে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

গত এপ্রিলের মাঝামাঝি থেকেই ইরানে লকডাউনে ধীরে ধীরে শিথিলতা আনা হয়। এর ফল স্বরুপ সাম্প্রতিক সময়ে দেশটিতে নতুন করে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে এখন পর্যন্ত ইরানেই আক্রান্ত ও মৃত্যু সবচেয়ে বেশি। এখন পর্যন্ত ইরানে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৫৫ হাজার ১১৭। এর মধ্যে মারা গেছে ১২ হাজার ৬৩৫ জন। অপরদিকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ২ লাখ ১৭ হাজার ৬৬৬ জন।

এদিকে, ইরানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সিমা সাদাত লারি টেলিভিশনে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেন,
দেশজুড়ে আমাদের সব ধরনের অনুষ্ঠান এবং জনসমাগম বন্ধ করতে হবে।

তিনি বলেন, এখন উৎসব বা সেমিনার করার সময় নয়। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পরীক্ষা বাতিল করা উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

এদিকে, নতুন করে সংক্রমণ বাড়ার পেছনে বিয়ের পার্টি, বিভিন্ন অনুষ্ঠান এবং অন্যান্য জনসমাগমকেই দায়ী করেছেন প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি এবং অন্যান্য কর্মকর্তারা।

ইরানের করোনাভাইরাস টাস্কফোর্সের এক উপদেষ্টা জানিয়েছেন, যদি সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হয় তবে এই করোনা মহামারিতে দেশটিতে ৫০ থেকে ৬০ হাজারের মতো মানুষ মারা যাবে। করোনার দ্বিতীয় স্রোত আরও ভয়াবহ হতে পারে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।