পিপি হিসেবে নিয়োগ পেলেন এডভোকেট নিজাম উদ্দিন

15


সিলেট জেলা ও মহানগর দায়রা জজ কোর্টের পিপি হিসেবে নিয়োগ পেলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ অ্যাডভোকেট নিজাম উদ্দিন। এর আগে ১৯৯৬-০১ সাথে সরকারের সহকারী পিপির দায়িত্ব পালন করেন।
গতকাল রোববার এ সংক্রান্ত আদেশ পাওয়ার বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে এই দায়িত্বে ছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিজবাহ উদ্দিন সিরাজ।
পারিবারিকভাবেই আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান এডভোকেট নিজাম উদ্দিন। তার পিতা সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আফতাব উদ্দিন ছিলেন মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও সিলেট আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন অন্যতম সদস্য। আর মেঝো ভাই সাদ উদ্দিন আহমদ ছিলেন ষাটের দশকে এম.সি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।
এছাড়াও নিজাম উদ্দিন ১৯৮০-৮৩ সালে নিজাম উদ্দিন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে ১৯৮৩-৮৬ সালে তিনি জেলার সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। সাধারণ সম্পাদক থাকাকালে এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের কর্মী হিসেবে কারাবরণও করতে হয় তাকে।
১৯৯৯-২০০৩ সালে সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০২-২০০৫ সালে জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান।
রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষা ও সামাজিক কাজে সম্পৃক্ত রয়েছেন এডভোকেট নিজাম উদ্দিন। সিলেট ডায়াবেটিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, দক্ষিণ সুরমা কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যকরী কমিটির সদস্য, জালালাবাদ অন্ধ কল্যাণ সমিতি, জাতীয় যক্ষ্মা নিরোধ কমিটি, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ ও বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি সিলেটের জীবন সদস্য এবং সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের বেসরকারি কারা পরিদর্শক তিনি।

  •